মেহেরপুরে সমাজসেবা অফিসের কর্মচারীকে কুপিয়ে হত্যা

মেহেরপুরে সমাজসেবা অফিসের কর্মচারীকে কুপিয়ে হত্যা

মেহেরপুর শহরের তাঁতীপাড়ায় সমাজ সেবা অফিসের কর্মচারী ফারুক হোসেনকে (৩৯) কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার (২৩ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে শহরের তাঁতীপাড়ায় এবং সদর থানার কাছে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ফারুক হোসেন মেহেরপুর শহরের তাঁতীপাড়া এলাকার সাখাওয়াত হোসেনের ছেলে। ২০০৮ সালে মেহেরপুর সমাজ সেবা অধিদপ্তরের রাঁধুনি হিসেবে তিনি চাকরিতে যোগদান করেন। পরে বিভাগীয় পরীক্ষা দিয়ে মাঠকর্মী হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন।

স্থানীয়রা জানান, রাত পৌনে ১১টার দিকে থানা মোড়ের একটি দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে কয়েকজন সন্ত্রাসী তাকে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। এতে তার ঘাড়, পিঠ ও পায়ে গভীর ক্ষত সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তিনি মারা যান।

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক হাবিবুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই তিনি মারা গেছেন। তার শরীরের ঘাড়ে, পিঠে এবং পায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে। যাতে গভীর ক্ষত হয়েছে এবং অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহ দারা খান জানান, প্রাথমিকভাবে এ হত্যার কোরো রহস্য উদঘাটন করা যায়নি। ঘটনার পরপরই পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পুলিশের একাধিক দল ইতোমধ্যে অভিযানে নেমেছে।

Leave a Reply