রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ৬০ কোটি ডলার দেবে দাতাগোষ্ঠী

রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ৬০ কোটি ডলার দেবে দাতাগোষ্ঠী

রোহিঙ্গাদের সহায়তায় প্রায় ৬০ কোটি ডলার দেওয়ার অঙ্গীকার করেছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক দাতা দেশ ও সংস্থা।

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরের সঙ্গে যৌথভাবে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন আয়োজিত ভার্চুয়াল সম্মেলনে এ প্রতিশ্রুতি এসেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।

বাংলাদেশের কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের বাস্তুচ্যুত নাগরিকদের সহায়তায় ২০২০ সালের জন্য ১০০ কোটি ডলারের তহবিল সংগ্রহের লক্ষ্য ধরা হয়েছিল। তার অর্ধেক অর্থও না আসার প্রেক্ষাপটে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সবচেয়ে বড় দাতা দেশ যুক্তরাষ্ট্র নতুন করে ২০ কোটি ডলার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন দেবে ১১ কোটি ৩০ লাখ ডলার এবং যুক্তরাজ্য ৬ কোটি ডলার দেবে। আরও বেশ কয়েকটি দেশ অর্থ সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার হাই কমিশনার ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি বলেছেন, ‘আজকে সর্বমোট ৫৯৭ মিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তার ঘোষণার মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় মানবিক সংকটে সাড়া দেওয়ার ক্ষেত্রে তার জোরাল অবস্থানের প্রতিফলন ঘটিয়েছে।’

২০১৭ সালের অগাস্টে মিয়ানমারের রাখাইনে সেনাবাহিনীর দমন অভিযান শুরুর পর সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা। তাদের কক্সবাজারের কয়েকটি কেন্দ্রে আশ্রয় দিয়ে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সহায়তায় জরুরি মানবিক সহায়তা দিয়ে আসছে বাংলাদেশ সরকার। এ ছাড়া আগে থেকে আশ্রয় নেওয়া আরও ৪ লাখের বেশি রোহিঙ্গাকে নিয়ে কক্সবাজার বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী আশ্রয় কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। এসব শরণার্থীদের পাশাপাশি তাদের আশ্রয় দেওয়া স্থানীয় জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে কাজ চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি।

Leave a Reply