ফাউচি একটি বিপর্যয় : ট্রাম্প

ফাউচি একটি বিপর্যয় : ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ করোনাভাইরাস বিশেষজ্ঞ ও অন্যতম সম্মানিত বিজ্ঞানী অ্যান্থনি ফাউচিকে ‘বিপর্যয়’ বলে উল্লেখ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ট্রাম্প বলেন, ‘ফাউচি একটি বিপর্যয়। যদি আমি তার কথা শুনতাম আমাদের ৫ লাখের মৃত্যু হতো।’

সোমবার (১৯ অক্টোবর) নিজের প্রচার কর্মীদের এক সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

১৯৮৪ সাল থেকে ড. অ্যান্থনি ফাউচি যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসের (এনআইএআইডি) পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণের প্রাথমিক অবস্থায় তিনি হোয়াইট হাউসের করোনা টাস্কফোর্সের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। পরবর্তী সময় প্রেসিডেন্টের সঙ্গে মতবিরোধের জেরে ওই টাস্কফোর্স বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়।

সোমবার নিজের প্রচার কর্মীদের সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘মানুষ করোনাভাইরাস নিয়ে ক্লান্ত। ফাউচি আর এসব অপদার্থদের কথা শুনতে শুনতেও মানুষ ক্লান্ত।’

মার্কিন সরকারের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে দীর্ঘ দিন দায়িত্ব পালন করে আসা ড. অ্যান্থনি ফাউচি ‘ভালো মানুষ’ ছিলেন বলে উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেন, ‘তবে তিনি এক জায়গায় পাঁচশ’ বছর ধরে রয়েছেন।’

ট্রাম্পের নির্বাচনী সমাবেশগুলোতে তার অনেক সমর্থককেই মাস্ক ছাড়া ও কাঁধে কাঁধ লাগিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে, এই দৃশ্য ফাউচি ও যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা মহামারী মোকাবেলার যে গাইড লাইন দিয়েছেন তার বিপরীত।

লাস ভেগাসের ট্রাম্প হোটেল থেকে কথা বলার সময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, টেলিভিশন সাক্ষাৎকারের সময় ফাউচি বোমা মেরেছেন কিন্তু ‘তাকে বরখাস্ত করা হলে তা আরও বড় বোমা’ হয়ে উঠবে।

মহামারীর কারণে আরোপ করা বিধিনিষেধে যুক্তরাষ্ট্রের লোকজন বিরক্ত হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেন ট্রাম্প।

ট্রাম্পের এসব বক্তব্যের বিষয়ে মন্তব্যের জন্য অনুরোধ করা হলেও ফাউচির দপ্তর তাতে সাড়া দেয়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

Leave a Reply