গেটাফের মাঠে বার্সার হার

গেটাফের মাঠে বার্সার হার

দলকে জয়ে ফেরাতে রোনাল্ড কুমান ভাঙলেন ফর্মেশন। জমজমাট ম্যাচে উল্টো হেরে গেল বার্সেলোনা। নিজেদের মাঠে লড়াকু ফুটবল খেলে দারুণ এক জয় পেল গেটাফে। লা লিগার ম্যাচে শনিবার রাতে ১-০ গোলে হেরেছে বার্সেলোনা। ২০১১ সালের পর দলটির বিপক্ষে এই প্রথম জিতল গেটাফে।

এই ম্যাচের আগে নিজেদের নাম পাল্টে ফেইথ ফুটবল ক্লাব রাখে গেটাফে। তাদের বিপক্ষেই মৌসুমে প্রথম পরাজয়ের তেতো স্বাদ পেল বার্সেলোনা। নতুন কোচ কুমানের অধীনেও এটা প্রথম হার।

আক্রমণ প্রতি আক্রমণে শুরু থেকে জমে ওঠে ম্যাচ। প্রথম ভালো সুযোগটা পায় গেতাফে। ১৮ মিনিটে গোলরক্ষক বরাবর শট নিয়ে দলকে হতাশ করেন নেমানিয়া মাক্সিমোভিচ। দুই মিনিট পর এগিয়ে যেতে পারতো বার্সেলোনা। প্রথমবারের মতো শুরুর একাদশে খেলা সের্জিনো দেস্তের কাছ থেকে বল পেয়ে লিওনেল মেসির বুলেট গতির শট ফেরে পোস্টে লেগে।

২৯তম মিনিটে আবার সুযোগ আসে সফরকারীদের সামনে। মেসির ফ্রি-কিকে ঠিক মতো হেড করতে পারেননি লংলে। পুরোপুরি ফাঁকায় ছিলেন নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা এই ফরাসি ডিফেন্ডার। পরের মিনিট সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন গ্রিজমান। প্রতি-আক্রমণে পেদ্রির কাছ থেকে বল পেয়ে অবিশ্বাস্যভাবে অনেক উপর দিয়ে শট নেন এই ফরাসি ফরোয়ার্ড।

৫৬তম মিনিটে হাইমে মাতার সফল স্পট কিকে এগিয়ে যায় গেতাফে। ডিজেনে ডাকোনামকে ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং ফাউল করায় পেনাল্টি পায় স্বাগতিকরা।

ফেলিপে কৌতিনিয়ো, আনসু ফাতিরা মাঠে আসার পর বাড়ে আক্রমণের গতি, কিন্তু গোলরক্ষককে পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি বার্সেলোনা। উল্টো ৮৩তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়তে যাচ্ছিল। প্রতি-আক্রমণ থেকে হুয়ান এর্নান্দেসের শট ফিরে ক্রসবারে লেগে। ৬ মিনিট পর তিনিই নষ্ট করেন সহজ সুযোগ। গোলরক্ষককে একা পেয়েও শট নেন অনেক উপর দিয়ে।

যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি মেসির শট। দুই মিনিট পর গেতাফে খেতে বসেছিল আত্মঘাতী গোল। দেস্তের ক্রস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে নিজেদের জালে পাঠিয়ে দিচ্ছিলেন ডিজেনে। ক্রসবারে লেগে ফিরলে মৌসুমের প্রথম হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

Leave a Reply