সঙ্কটে সৌমিত্র, নতুন করে জ্বর

সঙ্কটে সৌমিত্র, নতুন করে জ্বর

ভালো নেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। চিকিৎসা পরিভাষায় অবস্থা সঙ্কটজনক। ফেলুদার মস্তিষ্কে করোনা জনিত সংক্রমণের কারণে তৈরি হওয়া স্নায়ু অস্থিরতাই এখন তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি সংকটজনক করে তুলেছে। তবে এখনো তার শরীরের সমস্ত অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ভালো পর্যায়েই রয়েছে। সেগুলি স্বাভাবিক কাজকর্ম করছে। কিন্তু নিউরোলজিক্যাল অর্থাৎ মস্তিষ্কের স্নায়ু সংক্রান্ত সমস্যা এই মুহূর্তে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থাকে সঙ্কটজনক করে তুলেছে। সেই কারণে চিকিৎসকেরা ভেন্টিলেশন সাপোর্ট দেওয়ার যাবতীয় ব্যবস্থাও প্রস্তুত রেখেছেন।

হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, এখনও আচ্ছন্নভাব কাটেনি অভিনেতার। কিছুটা অস্থিরতা রয়েছে। উত্তেজিতও হয়ে পড়ছেন সৌমিত্র। এটাই এখন মূল সমস্যা। দেহের অন্যান্য অঙ্গ ঠিকঠাকই কাজ করছে। বরং তা উন্নতিই করছে বলা যায়। তবে ফের জ্বর এসেছে। এটা একটা ভাবনার কারণ।

সোমবার সকাল থেকেই বারেবারে চেষ্টা করা হয়েছিল তাঁর মস্তিষ্কের এমআরআই করানোর। অবশেষে দুপুরের পর তা সম্ভব হয়। এমআরআই রিপোর্ট নিয়ে মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা খুঁটিনাটি পরীক্ষা করে দেখেন। সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল সূত্রের খবর, একটা পর্যায়ে উত্তেজিত থাকা, এজিটেটেড হওয়া এবং আচ্ছন্নভাব এগুলো রয়েই যাচ্ছে। পূর্ণমাত্রায় সচেতন নন। মঙ্গলবার বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মেডিকেল বোর্ড।

হাসপাতালের ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ অরিন্দম করের অধীনে চিকিৎসা চলছে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের। তিনি বলেন,”সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ভালো নেই। শ্বাসযন্ত্রের ক্রিয়া স্বাভাবিক নয়। কারণ ফুসফুসে সংক্রমণ রয়েছে। আচ্ছন্ন ভাব রয়েছে। পূর্ণ মাত্রায় সচেতন নন তিনি। আজকে জ্বর এসেছে । সেটা চিন্তার কারণ। এখনো পর্যন্ত তাকে কোনো লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়নি। সোমবার অর্থাৎ আজ এমআরআই করা হয়েছে মস্তিষ্কে। সেখানে কোন কিছু তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় পাওয়া যায়নি। অভিনেতার মস্তিষ্কের নিউরোলজিক্যাল পরিস্থিতি ভালো নয়। সেটাই চিন্তার কারণ। তবে আমরা চিকিৎসকেরা আশাবাদী যে তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। কারণ তার শরীরের সমস্ত অর্গান সিস্টেম এখনো ভালো পর্যায়ে রয়েছে। স্বাভাবিক কাজকর্ম করছে। করোনা ততটা বিপজ্জনক পর্যায়ে নেই।”

Leave a Reply