পল্লবীতে কিশোরীকে গণধর্ষণ : গ্রেফতার ৪

পল্লবীতে কিশোরীকে গণধর্ষণ : গ্রেফতার ৪

ধর্ষণের বিরুদ্ধে যখন সরব পুরো দেশ, তখন রাজধানীর পল্লবীতে এক কিশোরীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। শনিবার রাতে পল্লবীর কালসীর একটি মেসে এ ঘটনা ঘটার পর ৪ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

১২-১৩ বছরের ওই কিশোরী দুই দিন আগে নোয়াখালী থেকে কালসীতে বাবার কাছে বেড়াতে এসেছিল।

পল্লবী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ আলী বলেন, বাবার সঙ্গে শনিবার রাতে রাগ করে বাসা থেকে বের হয়েছিল শিশুটি। কিছু দূর গিয়ে মেয়েটি পথ হারিয়ে ফেলে। এ সময় চারজন মেয়েটিকে বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কৌশলে কালসীর একটি মেসে নিয়ে যায়। সেখানে তারা মেয়েটিকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে রাতভর ধর্ষণ করে। রবিবার সকালে মেয়েটির চেতনা ফিরলে সে কান্নাকাটি শুরু করে দেয়। এ ফাঁকে ওই চারজন পালিয়ে যান। আশপাশের লোকজন এসে ঘটনা শুনে মেয়েটিকে থানায় নিয়ে আসে।

তিনি বলেন, মেয়েটি স্বাভাবিকভাবে হাঁটতে পারছে না। এ থেকে নিশ্চিত হওয়া যায় যে ঘটনা (ধর্ষণ) ঘটেছে।

ওই কিশোরীকে ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, মেয়েটি বাবার বাসা কোথায়, বলতে পারেনি। পুলিশ অনেক খোঁজাখুঁজি করে আজ (রবিবার) বিকালে মেয়েটির বাবাকে খুঁজে পায় এবং মামলা নেয়।

এরই মধ্যে পুলিশ মিরপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে আলামিন (২৩), মিন্টু (২২), জুয়েল (২৪) ও হৃদয় (২১) নামে চার যুবককে গ্রেফতার করে বলে ওসি জানান।

এই যুবকরাই ধর্ষণে জড়িত বলে পুলিশের ধারণা।

Leave a Reply