‘সৌদির চাকরিদাতারা কর্মী ছাটাই করলে সরকারের কিছু করার নেই’

‘সৌদির চাকরিদাতারা কর্মী ছাটাই করলে সরকারের কিছু করার নেই’

সৌদী আরবের চাকরিদাতা বা কফিলরা বিদেশি কর্মী ছাঁটাই করলে সরকারের কিছু করার নেই বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশের দূতাবাসের প্রতিনিধিদের ব্রিফ করার পর একথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

দেশে ফেরার পর করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রবাসী কর্মীদের কর্মস্থলে ফিরে যাওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে জটিলতা। তা দূর করতে সাত দেশের দূতাবাসের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময়ের কথা ছিল। তবে, কুয়েতের আমীর মারা যাওয়ায় দেশটির কোনও প্রতিনিধি বা রাষ্ট্রদূত যোগ দেননি সভায়।

সৌদী আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতার, ওমান, ইরাক এবং মালয়শিয়ার রাষ্ট্রদূত এবং লেবার কনস্যুলারদের দুপুরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ব্রিফ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। পরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, কফিল বা প্রতিষ্ঠানের মালিকরা কর্মী ছাটাই করলে সরকারের কিছু করার নেই। এছাড়া, বৃহস্পতিবার থেকেই সৌদিয়া এবং বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সপ্তাহে ১০টি করে ফ্লাইট পরিচালনা করবে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

আর সৌদি দূতাবাস ২৫ হাজার ভিসা নবায়ন করবে বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশের প্রতিনিধিদের নিয়ে আয়োজিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী। যারা প্রবাসে চাকরি হারাচ্ছেন তাদের জন্য সরকার নতুন কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করছে বলেও জানান দুই মন্ত্রী।

Leave a Reply