মসজিদে বিস্ফোরণ: আলামত-কাগজপত্র সিআইডিকে হস্তান্তর

মসজিদে বিস্ফোরণ: আলামত-কাগজপত্র সিআইডিকে হস্তান্তর

নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণে পুলিশের করা মামলার আলামত বুঝে পেয়েছে সিআইডি।

আজ রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) মামলার আলামত ও কাগজপত্র সিআইডিকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

পশ্চিম তল্লা এলাকায় বাইতুস সালাত জামে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের নয় দিন পর পুড়ে যাওয়া বিভিন্ন আসবাব আলামত হিসেবে জব্দ করে ফতুল্লা থানা পুলিশ। ঘটনার দশম দিন রবিবার দুপুরে এএসআই বারেকের নেতৃত্বে ফতুল্লা থানা পুলিশ মসজিদের ভেতরে প্রবেশ করে ক্ষতিগ্রস্ত ফ্যান, চেয়ার, দেয়াল ঘড়ি ও জুতা রাখার বাক্সসহ পুড়ে যাওয়া আসবাব সংগ্রহ করে।

আলামতগুলো থানায় নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে কয়েকটি বস্তায় ভরা হয়।

মামলার বর্তমান তদন্তকারী সিআইডির পরিদর্শক বাবুল হোসেন জানান, আমরা আলামত দেখেছি এবং কাগজপত্র বুঝে পেয়েছি। পুলিশের মালখানায় আলামত রয়েছে। আমরা দ্রুত তদন্ত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আজও ঘটনাস্থলে তদন্ত করেছি। আশা করছি দ্রুতই ফলাফল দিতে পারব।

এর আগে রোববার ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হুমায়ুন কবির বাদী হয়ে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় গাফিলতির অভিযোগ এনে মামলাটি দায়ের করেন।

এদিকে সকাল থেকে মসজিদের সামনের রাস্তায় তৃতীয় দিনের মতো মাটি ভরাটের কাজ করছেন তিতাসের কর্মীরা। বিস্ফোরণের পর তিতাস কর্তৃপক্ষ মসজিদের তিন পাশে গ্যাসের লাইনের অবস্থান ও ছিদ্র অনুসন্ধান করতে মাটি খোঁড়াখুঁড়ি করলে গর্তগুলো সৃষ্টি হয়। গর্তের মাটিগুলো মসজিদের সামনের রাস্তার বিভিন্ন স্থানে স্তূপ করে রাখা হলে এলাকাবাসীর চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। টানা চার দিন খোঁড়াখুঁড়ির করে গ্যাসের পাইপ লাইনে ছয়টি ছিদ্র পাওয়া যায়। তবে আর ছিদ্র পাওয়ার সম্ভাবনা না থাকায় রাস্তাটি মানুষের চলাচলের উপযোগী করতে গত শুক্রবার থেকে খোঁড়াখুঁড়ির কাজ বন্ধ করে গর্তগুলো ভরাটের কাজ শুরু করে তিতাস কর্তৃপক্ষ।

৪ সেপ্টেম্বর রাতে নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা বাইতুস সালাত জামে মসজিদে এশার নামাজ চলাকালে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দগ্ধ ৩৮ জনকে ঢাকা মেডিকেলের শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩১ জন মৃত্যুবরণ করেন। একজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বাকি পাঁচজনকে আইসিউতে রাখা হয়েছে।

এ ঘটনায় জেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস, তিতাস, ডিপিডিসি ও সিটি করপোরেশন থেকে পৃথক পাঁচটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কোনো কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেনি।

Leave a Reply