সুশান্ত ইস্যুতে মৃত্যুর দিনের বিস্ফোরক হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ফাঁস করলেন অনুরাগ

সুশান্ত ইস্যুতে মৃত্যুর দিনের বিস্ফোরক হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ফাঁস করলেন অনুরাগ

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর আড়াই মাস ধরে চুপ থেকেছেন। এযাবৎকাল কোনওরকম মন্তব্য করতে শোনা যায়নি অনুরাগ কাশ্যপকে। বিনোদন ইন্ডাস্ট্রি থেকে বিতর্কের জল রাজনৈতিক মহলের দোরগোড়া ছুঁলেও ‘মৌনব্রত’ পালন করেছেন। তবে বিগত কয়েক দিন ধরে প্রয়াত অভিনেতার মৃত্যু তদন্তের মাঝে নেটদুনিয়া যেভাবে ‘মান আর হুঁশ’কে চ্যালেঞ্জের মুখে দাঁড় করিয়েছে, তাতে আর চুপ থাকতে পারলেন না বলিউড পরিচালক। ভঙ্গ করলেন ‘মৌনি মহারাজ’ ভূমিকা। সুশান্তের ম্যানেজারের সঙ্গে হওয়া হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথন প্রকাশ্যে এনে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন যে, “একেবারে ব্যক্তিগত কারণেই সুশান্তের সঙ্গে কাজ করতে চাইনি।”

সুশান্তের মৃত্যুর তিন সপ্তাহ আগে তাঁর ম্যানেজারের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে যে কথোপকথন হয়েছিল তা এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস করলেন পরিচালক নিজে। যেখানে অভিনেতার ম্যানেজার অনুরাগকে আরজি জানিয়েছেন যে নতুন কোনও কাজ এলে তিনি যেন সুশান্তের কথা মাথায় রাখেন। যার প্রেক্ষিতে অনুরাগকে তাঁকে বলতে দেখা গিয়েছে যে, “সুশান্ত ভীষণ সমস্যা করেন।”

সেই হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের স্ক্রিনশট পোস্ট করে অনুরাগের মন্তব্য, “আমি দুঃখিত যে অবশেষে আমাকেও এটা করতে হল! সুশান্তের মৃত্যুর তিন সপ্তাহ আগে ওঁর ম্যানেজারের সঙ্গে আমার কথোপকথন। ভাবিনি কখনও এটা পোস্ট করব। কিন্তু চারদিকে যা পরিস্থিতি তাতে বাধ্য হলাম। হ্যাঁ, আমি ব্যক্তিগত কারণেই সুশান্তের সঙ্গে কাজ করতে চাইনি।”

অনেকেই এযাবৎকাল বলে এসেছেন যে, ইন্ডাস্ট্রির অন্দরের কেউই সুশান্তের পরিবারের হয়ে ভাবেননি! তার প্রেক্ষিতেও অভিনেতার মৃত্যুর দিন ম্যানেজারের সঙ্গে হওয়া চ্যাটের আরেকটি স্ক্রিনশট প্রকাশ করেছেন অনুরাগ। যেখানে পরিচালককে সুশান্তের দিদিদের পরিস্থিতির ব্যাপারে খোঁজখবর নিতে দেখা গিয়েছে। সেই স্ক্রিনশট পোস্ট করে অনুরাগ কাশ্যপের সাফ মন্তব্য, “যাঁরা ভাবেন যে আমরা ওঁর পরিবারে ব্যাপারে ভাবি না বা ভাবিনি, এটা তাঁদের জন্য। নিন, এবার যেমন ইচ্ছে আমায় বিচার করে দেখুন।”

ব্যস, অনুরাগের এই পোস্ট দেখে নেটদুনিয়ায় অমনি নেটজনতাদের একাংশ ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকেন। কেন এতদিন চুপ ছিলেন? অনেকেই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন পরিচালকের উদ্দেশে। এই বিষয়ে অনুরাগের উত্তর, “আসলে সুশান্তের সম্মানের জন্যই এতদিন চুপ থেকেছে ইন্ডাস্ট্রি। সবাই রিয়ার প্রতি আঙুল তুলে জিজ্ঞাসা করছেন, আপনি কী করে জানলেন যে উনি নির্দোষ, কিছু করেননি! তাঁরা হয়তো ভুলে যাচ্ছেন যে এই পুরো বলিউড ইন্ডাস্ট্রিটাই গত ৯-১০ বছর ধরে সুশান্তকে খুব কাছ থেকে দেখেছে। কাজেই আমরা ওঁকে অনেক ভাল চিনি। আর এবারও সুশান্তের কথা মাথায় রেখেই আমরা সবাই মিলে রিয়ার পাশে দাঁড়িয়েছি। কারণ, জল এখন অনেকদূর গড়িয়েছে।”

Leave a Reply