অসৌজন্যমূলক আচরণ : স্টুয়ার্ট ব্রডকে শাস্তি দিলেন বাবা ক্রিস ব্রড

অসৌজন্যমূলক আচরণ : স্টুয়ার্ট ব্রডকে শাস্তি দিলেন বাবা ক্রিস ব্রড

ইংল্যান্ডে ক্রিকেট ফেরার সঙ্গে সঙ্গে দারুণ একটা ঘটনা ঘটে চলেছে। মাঠে বল হাতে গতির ঝড় তুলছেন স্টুয়ার্ট ব্রড, আর ম্যাচ রেফারি হিসেবে সব কিছু খেয়াল রাখছেন তাঁর বাবা ক্রিস ব্রড। মাঠে অসৌজন্যমূলক আচরণ করলে ক্রিকেটারদের শাস্তি পেতেই হবে। আর এই শাস্তিটা ঘোষণা করেন ম্যাচ রেফারি। আইনের চোখে সবাই সমান। তাই বাবা ম্যাচ রেফারি হলেও পার পেলেন না ইংলিশ গতি তারকা।

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংস চলার সময় ইয়াসির শাহকে আউট করে আগ্রাসন প্রকাশ করতে গিয়ে বাজে মন্তব্য করে বসেন স্টুয়ার্ট ব্রড। এতে আইসিসির কোড অব কন্ডাক্টের ২.৫ অনুচ্ছেদের লঙ্ঘন হয়েছে। যে কারণে ব্রডকে শাস্তি পেতেই হতো। এবার সেই শাস্তি ঘোষণা করেছেন তাঁর বাবা। স্টুয়ার্টের ম্যাচ ফির ১৫ ভাগ জরিমানা করা হয়েছে। জুটেছে ১টি ডিমেরিট পয়েন্ট। স্টুয়ার্ট ব্রড তাঁর ওপর আনীত অভিযোগ মেনে নিয়েছেন, ফলে নতুন করে শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।

উল্লেখ্য, ইংল্যান্ড-উইন্ডিজ সিরিজ দিয়েই প্রথমবারের মতো টেস্ট ক্রিকেটে বাবা-ছেলের এক ম্যাচে উপস্থিতির ঘটনা ঘটে। এরপর ওল্ড ট্রাফোর্ডে পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ডের মধ্যকার টেস্টেও ম্যাচ রেফারি ছিলেন ক্রিস ব্রড। করোনাভাইরাসের কারণে ক্রিকেটের প্রধান সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) স্থানীয় আম্পায়ারদের নিয়েই ম্যাচ পরিচালনার আইন করেছিল। ফলে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত সিরিজগুলোতে স্বাগতিক আম্পয়াররাই দায়িত্ব পালন করছেন।

Leave a Reply