শিগগিরই স্বাভাবিক জীবনে ফেরার সুযোগ নেই: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

শিগগিরই স্বাভাবিক জীবনে ফেরার সুযোগ নেই: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অনেক দেশ এখনও ভুল পথে হাঁটছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক টেড্রোস আডানোম গেব্রিয়াসিস। যা করোনাভাইরাসকে আরও ভয়াবহ করে তুলতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

সোমবার জেনেভায় এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বলেন, বেশ কিছু দেশ করোনা সতর্কতা মেনে চলছে না। ফলে সেখানে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে। এখনও নিয়ম পালন না করলে পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাবে।

করোনাভাইরাস এখনও জনগণের এক নম্বর শত্রু উল্লেখ করে তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সংক্রমণের ৮০ ভাগই হচ্ছে মাত্র দশটি দেশে। এরমধ্যে ৫০ শতাংশ দুটি দেশের। সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে।

যুক্তরাষ্ট্র প্রায় ৩৫ লাখ লোক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৩৮ হাজার মানুষের। নিউ ইয়র্কের পরে এ বার ফ্লোরিডায় সংক্রমণ লাফিয়ে বাড়ছে। হিউস্টনের অবস্থাও বেশ খারাপ। অভিযোগ, করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য কোনও পদক্ষেপই সময়ে নেননি ট্রাম্প। তারই মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গেও বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি।

শুধু উত্তর অ্যামেরিকা নয়, দক্ষিণ অ্যামেরিকার পরিস্থিতিও ভয়াবহ। এখনও পর্যন্ত সেখানে এক লাখ ৪৫ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। যার অর্ধেকই ব্রাজিলে। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ, ব্রাজিলের বিরুদ্ধেও সেই একই অভিযোগ। সময়ে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। যার ফল এখন ভুগছে দেশ। আক্রান্ত স্বয়ং প্রেসিডেন্ট বলসোনারো।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বক্তব্য, লকডাউন ছাড়া কোনও উপায় নেই। অ্যামেরিকায় যেখানে যেখানে লকডাউন খোলা হয়েছে, সেখানে সেখানেই ভাইরাস দ্রুত সংক্রমিত হতে শুরু করেছে। ভারতেও একই ঘটনা ঘটেছে। ডাব্লিউএইচও-র বক্তব্য, গোটা দেশকে দীর্ঘ দিন লকডাউনের মধ্যে রাখা সম্ভব নয়। কিন্তু এলাকা বেছে বেছে লকডাউন চালিয়ে যেতেই হবে। নইলে এই ভাইরাসকে ঠেকানো অসম্ভব।

শিগগিরই স্বাভাবিক জীবনে ফেরার সুযোগ নেই বলেও জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। করোনার হাত থেকে মুক্তি কবে, সে বিষয়ে কিছু জানাতে পারেনি ডাব্লিউএইচও। তাদের বক্তব্য, অতীতে মানুষ যে ভাবে বেঁচেছে, অদূর ভবিষ্যতে তেমন দিন ফিরে আসার কোনও সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছে না ডাব্লিউএইচও। সামাজিক দূরত্বের নীতি বহু দিন পালন করে যেতে হবে বলেই তাদের বক্তব্য। শুধু তাই নয়, সামাজিক অনুষ্ঠানও আপাতত অসম্ভব বলেই তাদের অভিমত।

ডাব্লিউএইচও-র বক্তব্য, করোনার টিকা দ্রুত আবিষ্কার হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। বিভিন্ন দেশে পরীক্ষানিরীক্ষা চলছে। তবে আগামী বছরের আগে বাজারে টিকা আসার কোনও সম্ভাবনা নেই। আর ভাইরাসও প্রকৃতি থেকে এমনি এমনি মিলিয়ে যাবে, এমন ভাবারও কোনও কারণ নেই। ফলে ধরেই নিতে হবে, আরও বেশ কিছু দিন ভাইরাসকে সঙ্গে নিয়েই চলতে হবে সকলকে। এবং তার জন্য সতর্কতাও অবলম্বন করতে হবে।

Leave a Reply