অনলাইনে কেনা কোরবানির পশুর হাসিল থাকবে না: মেয়র আতিক

অনলাইনে কেনা কোরবানির পশুর হাসিল থাকবে না: মেয়র আতিক

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে অনলাইনে কেনা কোরবানির পশুর জন্য কোন হাসিল থাকছেনা বলে জানিয়েছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। শনিবার (১১ জুলাই) ভার্চুয়াল হাটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

এদিকে করোনার কারণে এরইমধ্যে পশুর হাট কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। হাটের সংখ্যা এবং পরিসর কমবে সারা দেশেই। তারপরও অনেকেই হাটের মত জনাকীর্ণ জায়গায় যাওয়ার ঝুঁকি এড়াতে চাইবেন। এসব বিষয় মাথায় রেখেই এবছর অনলাইন পশুর হাট আরও জমজমাট হচ্ছে। অনলাইন মার্কেট প্লেসগুলো এরইমধ্যে তাদের বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা গতবারের চেয়ে কয়েকগুণ ঠিক করেছে।

শুধু পশু বিক্রিই নয়, ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরবানি করে দেয়ারও অফার দিচ্ছে বেশ কিছু অনলাইন পোর্টাল। কিন্তু প্রান্তিক কৃষক ও খামারিরা ঠিকমতো জানেন না অনলাইন পশু হাটের কথা। তবে খামারিরা যেন সহজেই তাদের পশু অনলাইনে বিক্রি করতে পারেন সেজন্য সরকারিভাবেও নেয়া হচ্ছে নানা ব্যবস্থা।

আইসিটি বিভাগ সারা দেশেই চালু করছে অনলাইন হাটের। কৃষকদের এ বিষয়ে সচেতন করতেও নেয়া হচ্ছে ব্যবস্থা। এছাড়া প্রাণিসম্পদ অফিসগুলোও এরই মধ্যে বিভিন্ন উপজেলায় অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রি কার্যক্রম শুরু করেছে।

উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘ঢাকা শহরের ভেতরের হাটগুলোকে এভোয়েট করার জন্য বলেছি। আমরা মনেকরি করোনা যতদিন থাকবে করোনাকে মেনেজ করেই সামনের দিকে আগাতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনেকেই গরুর হাটে যাবেন না তাদের জন্য এই অনলাইন পশু হাটের সিস্টেম।’

Leave a Reply