নভেম্বরের আগেই অভিবাসন নীতি ও ভিসা সংস্কার করবেন ট্রাম্প

নভেম্বরের আগেই অভিবাসন নীতি ও ভিসা সংস্কার করবেন ট্রাম্প

আগামী নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসন নীতি এবং ভিসা সংস্কারের পদক্ষেপ নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

মেধাভিত্তিক অভিবাসন পদ্ধতি চালু করার জন্য হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে একটি নিউজ চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান, তিনি এক্সিকিউটিভ নির্দেশের বিষয়ে কাজ করছেন। এই পদ্ধতির মাধ্যমে আমেরিকায় নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য যে আবেদন করতে হয় সেই বিষয়টিও থাকছে।

ট্রাম্প জানান, এই নীতি চালু হলে নাগরিকত্ব পাওয়া সহজ হবে এবং তরুণ অভিবাসীদের আইনগত সুরক্ষা দেওয়ার বিষয়টিও এই বিলের অন্তর্ভুক্ত করা হবে। অভিবাসনে নীতিতে ডিফারড অ্যাকশন ফর চাইল্ডহুড অ্যারাইভাল (ডিএসিএ) নামে পরিচিত নীতি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

ট্রাম্প বলেন, “এটা খুব, খুব বড় একটা বিল হতে চলেছে। খুব ভালো একটা বিল। মেধাভিত্তিক অভিবাসনে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে ডিএসিএ-কে। আমার মনে হয় জনগণ খুব খুশি হবে।”

সম্প্রতি ট্রাম্প প্রস্তাবিত অভিবাসন নীতির বিরুদ্ধে রায় দেয় মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট। দেশটির শীর্ষ আদালত জানায় ৬ লাখ ৫০ হাজার তরুণ অভিবাসীদের আইনগত সুরক্ষা দেওয়া বন্ধ করার যে প্রচেষ্টা করেছিল প্রশাসন তা প্রত্যাখ্যান করা হচ্ছে। এছাড়া আদালত এই অভিবাসীদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কাজ করার যে অনুমোদন রয়েছে তা বহাল রেখেছে।

অপ্রাপ্তবয়স্ক অবস্থায় নাগরিকত্বের জন্য প্রয়োজনীয় নথি ছাড়াই যুক্তরাষ্ট্রে ছিলেন সাড়ে ছয় লাখ অভিবাসী। বর্তমানে তাঁরা যুক্তরাষ্ট্রেই থাকছেন। ২০১২ সালে বারাক ওবামা প্রেসিডেন্ট পদে থাকাকালীন তাঁদের নাগরিকত্ব না দিলেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে থাকা ও কাজ করার আইনি অনুমতি দিয়েছিলেন।

২০১৬ সালে নির্বাচনী প্রচারে এই সব অভিবাসন নীতির বিরুদ্ধে প্রস্তাবকে হাতিয়ার করেই প্রেসিডেন্ট পদের জন্য প্রচার চালান ট্রাম্প। সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

Leave a Reply