এবার পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

এবার পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাফর মির্জা। সোমবার তার করোনাভাইরাসের পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
এর আগে, দেশটির বেশ কয়েকজন জ্যেষ্ঠ সরকারি এমপি-মন্ত্রী ও কর্মকর্তা করোনায় আক্রান্ত হন। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিশেষ স্বাস্থ্য সহকারী ডা. মির্জা বলেছেন, তিনি করোনাভাইরাসের মৃদু উপসর্গে ভুগছেন। তবে করোনা সংক্রমণ রোধে সব ধরনের পূর্ব-সতর্কতামূলক ব্যবস্থা তিনি গ্রহণ করে আসছিলেন বলে জানিয়েছেন।
এক টুইট বার্তায় পাক এই স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমার কোভিড-১৯ টেস্টের ফল পজিটিভ এসেছে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আমি বাড়িতে স্বেচ্ছা আইসোলেশনে রয়েছি এবং সব ধরনের সতর্কতা অবলম্বন করছি। আমার মৃদু উপসর্গ দেখা দিয়েছে।
দেশের ক্রান্তিকালে ভালো কাজ অব্যাহত রাখতে সহকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ডা. মির্জা। তিনি বলেন, আপনারাই বিশাল ব্যবধান তৈরি করছেন। আপনাদের নিয়ে আমি গর্বিত।
করোনাভাইরাস মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে পাকিস্তানের এই স্বাস্থ্যমন্ত্রী সরকারের সম্মুখ সারিতে থেকে মোকাবিলা কার্যক্রমের নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। প্রত্যেকদিন দেশটির করোনা পরিস্থিতি নিয়ে গণমাধ্যমের সামনে হাজির হন তিনি।
গত শুক্রবারের দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। নিজের করোনা আক্রান্তের খবর দিয়ে পাক এই মন্ত্রী স্বেচ্ছা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন বলে জানান। পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল তেহরিক-ই-ইনসাফের ভাইস প্রেসিডেন্ট কুরেশিকে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পর দেশটির সরকারের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর হিসেবে মনে করা হয়।
পাকিস্তানের বেশ কয়েকজন সংসদ সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন; ইতোমধ্যে যাদের বেশ কয়েকজন মারাও গেছেন। সোমবার দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৩১ হাজার ছাড়িয়েছে এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৭৬২ জন। সূত্র: পিটিআই।

Leave a Reply