লাদেনকে ‘শহিদ’ আখ্যা ইমরান খানের

লাদেনকে ‘শহিদ’ আখ্যা ইমরান খানের

গণতন্ত্রের বেদিতে দাঁড়িয়ে জেহাদি ওসামা বিন লাদেনকে ‘শহিদ’ আখ্যা দিলেন ইমরান খান। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী সাফ বলেন, “ওসামা বিন লাদেন একজন শহিদ। আমেরিকার লড়াইয়ে যোগ দিয়ে ভুল করেছে পাকিস্তান।”
সন্ত্রাসবাদীদের চারণভূমি পাকিস্তানের স্বরূপ বিশ্বের কাছে অজানা নয়। তবুও আফগানিস্তানে মার্কিন স্বার্থ রক্ষায় ইসলামাবাদকে কোটি কোটি ডলার দান করে এসেছে ওয়াশিংটন। তবে মার্কিন মসনদে বসে সেই ‘ভিক্ষা’য় লাগাম টেনেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফলে ইসলামাবাদ-ওয়াশিংটন সম্পর্কে বরফ আরও জমাট বেঁধেছে। বৃহস্পতিবার সেই বিষয় আরও স্পষ্ট করে পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে ইমরান বলেন, “সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আমেরিকার লড়াইয়ে প্রাণ দিয়েছেন ৭০ হাজার পাকিস্তানি। ওই যুদ্ধে আমাদের অংশগ্রহণ উচিত হয়নি। আল কায়দার প্রতিষ্ঠাতা ওসামা বিন লাদেন একজন শহিদ।”
এদিকে, ইমরানের মন্তব্য প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছে তুমুল জল্পনা। খোদ পাক নাগরিকদের একাংশই রীতিমতো সমালোচনায় মুখর হয়েছেন। বিশ্লেষকদের একাংশের মতে, আমেরিকাকে চাপে ফেলতেই উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই এই মন্তব্য করেছেন ইমরান। তিনি ঘুরিয়ে আমেরিকার কাছে আর্থিক মদত চাইছেন। কারণ, করোনা ভাইরাসের জেরে পাকিস্তানের ভগ্নপ্রায় অর্থনীতি আরও ভঙ্গুর হয়ে পড়েছে।
উলেখ্য, গত বছর আমেরিকা সফরে গিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কিন্তু সরাসরি আল-কায়দা প্রধানকে হত্যার কৃতিত্ব দাবি করেছিলেন। আমেরিকা সফরে গিয়ে সে দেশের একটি সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইমরান বলেছিলেন, লাদেনের গোপন ডেরা খুঁজে বার করতে আমেরিকাকে সাহায্য করেছিল আইএসআই। অর্থাৎ, প্রকারান্তরে তিনি স্বীকার করে নিয়েছিলেন যে, লাদেন যে পাকিস্তানে ছিল, তা জানত ইসলামাবাদ। এবার সেই কথা থেকে একেবারে ঘুরে গিয়ে লাদেনকেই শহিদ আখ্যা দিয়ে ফের নয়া বিতর্ক উসকে দিয়েছেন ইমরান খান।

Leave a Reply