যুক্তরাষ্ট্র ক্ষমা চাইলে আলোচনায় রাজি ইরান: রুহানি

যুক্তরাষ্ট্র ক্ষমা চাইলে আলোচনায় রাজি ইরান: রুহানি

রানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেছেন, পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র ক্ষমা চাইলে আলোচনার টেবিলে বসতে রাজি আছে ইরান।

আজ বুধবার (২৪শে জুন) রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক ভাষণে তিনি এ কথা বলেন। খবর রয়টার্স।

খবরে বলা হয়, ইরানি প্রেসিডেন্ট জানান যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসতে ইরানের সমস্যা নেই। তবে এ উদ্যোগ তখনই সম্ভব হবে যখন যুক্তরাষ্ট্র তার কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চাইবে। যখন ওয়াশিংটন পরমাণু চুক্তি’র প্রতিশ্রুতিগুলো পূরণ করবে। পাশাপাশি, চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যাপারে প্রস্তুত থাকবে।

হাসান রুহানি আরো বলেন, তেহরানকে আলোচনায় বসতে ওয়াশিংটন যেসব আহ্বান জানায় তা নিছকই মিথ্যাচার আর শব্দের খেলা।

২০১৫ সালে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের (ইউএনএসসি) স্থায়ী পাঁচ সদস্য দেশ ও জার্মানির সঙ্গে পরমাণু চুক্তি করে ইরান। তবে ওই চুক্তির বিরোধিতা করে ট্রাম্প নির্বাচনের আগেই জানান, ইরানের ক্রমবর্ধমান প্রভাব বিস্তার রোধ এবং তাদের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ন্ত্রণে কিছু নেই ওই চুক্তিতে।

যার ফলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালের মে মাসে মিত্র দেশগুলোর পরামর্শ উপেক্ষা করেই চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন।

Leave a Reply