বিক্ষোভ থামাতে সর্বোচ্চ ক্ষমতা প্রয়োগের হুমকি ট্রাম্পের

বিক্ষোভ থামাতে সর্বোচ্চ ক্ষমতা প্রয়োগের হুমকি ট্রাম্পের

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেকে আইন-শৃঙ্খলার প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। গতকাল সোমবার হোয়াইট হাউসের বাইরে শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভকারীদের ওপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করার পর তিনি এসব কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড নিহতের জেরে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বিক্ষোভ চলছে। জর্জ ফ্লয়েডের পরিবার থেকে করা ময়নাতদন্তের ফলাফলেও জানা গেছে, তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

সোমবার বিকেলে হোয়াইট হাউসের বাইরে বিক্ষোভকারীদের মাথার উপর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হেলিকপ্টার ওড়ার সময় রোজ গার্ডেন থেকে ট্রাম্প বলেন, দেশব্যাপী লুটপাট বন্ধ করতে, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ঠিক রাখতে এবং সামরিক সংস্থাগুলোকে একত্রিত করতে আমি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

তিনি আরো বলেন, প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমার প্রথম এবং সর্বোচ্চ দায়িত্ব হলো আমাদের মহান দেশ এবং মার্কিনিদের রক্ষা করা। আমি আমাদের আইন বহাল রাখার শপথ নিয়েছিলাম এবং আমি ঠিক তাই করব।

তবে তিনি মনে করেন, জর্জ ফ্লয়েড বিচার পাবেন। শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকারী সকলের মিত্র হিসেবেও নিজেকে উল্লেখ করেন ট্রাম্প।

তিনি এও বলেছেন, সহিংস বিক্ষোভ থামাতে প্রয়োজন হলে প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিজের সর্বোচ্চ ক্ষমতা ব্যবহার করবেন। হাজার হাজার সশস্ত্র সৈন্য, সামরিক কর্মী এবং আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তাদের মোতায়েন করারও হুমকি দিয়েছেন তিনি।

ট্রাম্প বলেছেন, কোনো শহর কিংবা অঙ্গরাজ্য যদি তাদের জনগণের জীবন ও সম্পত্তি বাঁচাতে অস্বীকৃতি জানায়, তাহলে আমি যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী নিয়োগ করবো এবং দ্রুত এ সমস্যার সমাধান করবো। বিক্ষোভ থেকে সহিংস কর্মকাণ্ড ঘটুক, সেটা আমি চাই না।

সূত্র : ইস্ট বে টাইমস

Leave a Reply