ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন : শ্বাসরোধে মৃত্যু হয়েছে জর্জ ফ্লয়েডের

ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন : শ্বাসরোধে মৃত্যু হয়েছে জর্জ ফ্লয়েডের

মার্কিন যুবক জর্জ ফ্লয়েডের পরিবার তার ময়নাতদন্ত করেছে। ফলাফলে জানা যায়, জর্জ ফ্লয়েডকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল সোমবার জর্জ ফ্লয়েডের পরিবারের নিয়োগ করা অ্যাটর্নি এ কথা জানিয়েছেন।

ময়নাতদন্তে জানা যায়, পেছন থেকে গলা চেপে রাখার কারণে জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু হয়েছে। এটা সবারই জানা যে, মিনেসোটার একজন শ্বেতাঙ্গ পুলিশ জর্জ ফ্লয়েডকে বেশ কয়েক মিনিট ধরে মাটিতে ফেলে রেখে গলার ওপর হাঁটু চেপে রেখে হত্যা করেছেন।

ওই সময় জর্জ ফ্লয়েড বারবার বলেছিলেন, তার শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু মিনেসোটা পুলিশ তা কর্ণপাত করেনি। এমনকি সেখানে উপস্থিত আরো চারজন পুলিশও কোনো পদক্ষেপ নেননি।

অ্যাটর্নি বেন ক্রাম্প বলেন, ময়নাতদন্তে চিকিৎসকরা জানতে পেরেছেন, পেছন থেকে ঘাড় চেপে রাখার ফলে জর্জ ফ্লয়েডের মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক অ্যালেসিয়া উইলসন গতকাল সোমবার সাংবাদিকদের জানান, শ্বাসরোধ এবং ঘাড় চেপে রাখার কারণে মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালন বন্ধ হয়ে জর্জ ফ্লয়েড মারা গেছেন।

জানা গেছে, ফ্লয়েডকে হাতকড়া পরানো ছিল। তার পরেও মাটিতে চেপে ধরে ঘাড়ের উপর হাঁটু দিয়ে সজোরে চাপ দিয়েছিলেন। ওই সময় ফ্লয়েড বারবার শ্বাস নিতে না পারার কথা বললেও পুলিশ তা কানে তোলেনি।

ফ্লয়েড হত্যার ব্যাপারে ময়নাতদন্তে সরকারের ওপর ভরসা রাখেনি ফ্লয়েডের পরিবার। সেজন্য নিজেরাই ময়নাতদন্ত করেন তারা।

সূত্র : গ্লোবাল নিউজ

Leave a Reply