জার্মানি বলল, চীনের বিরূদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ অমূলক

জার্মানি বলল, চীনের বিরূদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ অমূলক

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে সারা বিশ্বে এ পর্যন্ত তিন লাখ ২০ হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে৷ সবচেয়ে বড় বিপর্যয়ের মুখোমুখি এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র৷ সেখানে ৯২ হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শুরু থেকেই এই বিপর্যয়ের জন্য চীনকে দোষারোপ করে আসছেন।

ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরুটা চীনে হয়েছিল বলে সে দেশের সমালোচনা হচ্ছে, তবে কভিড-১৯ মহামারির জন্য ‘চীন দায়ী’ মার্কিন প্রেসিডেন্টের এমন দাবির সঙ্গে একমত নয় জার্মানি। দেশটির পার্লামেন্টের বৈজ্ঞানিক পরিষেবা বিভাগ মহামারিটির অর্থনৈতিক পরিণতির জন্য চীনের বিরুদ্ধে মার্কিন অভিযোগকে অগ্রহণযোগ্য ঘোষণা করেছে।

এছাড়াও, মহামারিটির জন্য কেউ দায়ী কিনা সে প্রশ্নটি স্পষ্ট করা যায়নি বলে বলা হয়েছে জার্মান সংসদের নথিতে। বুন্ডেস্টাগ বিশেষজ্ঞ এবং আন্তর্জাতিক আইনের অন্যান্য বিশেষজ্ঞরা এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন যে, যথাযথ প্রমাণ ছাড়া ওয়াশিংটনের দাবির প্রেক্ষিতে চীনকে কাঠগড়ায় দাঁড় করার কোনো আইনগত ভিত্তি নেই।

আজ পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে, কভিড -১৯ মহামারিতে প্রায় ৫০ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যুবরণ করেছে ৩ লাখ ২০ হাজারের বেশি মানুষ। তবে কোনো পরিস্থিতিতেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জাতিসংঘ নিরাপত্তা কাউন্সিলের মাধ্যমে চীনের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে না। যেহেতু চীনেরও ভেটো ক্ষমতা রয়েছে। তাই এমন কোন প্রস্তাব পাস হওয়া অসম্ভব। জার্মানি আশা করে ওয়াশিংটন এবং বেইজিং নিরাপত্তা কাউন্সিলের বিরোধ নিষ্পত্তি করতে সম্মত হবে। যদি এটি সফল না হয়, তবে জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস মধ্যস্থতাকারী হিসাবে চেষ্টা করতে পারেন।

তবে, মার্কিন সরকার যদি ডোনাল্ড ট্রাম্পের নেতৃত্বে চীনের উপর একতরফা নিষেধাজ্ঞা জারি করে তাহলে চীন সম্ভাব্য সকল উপায়ে সেটার প্রতিরোধের চেষ্টা করবে এবং প্রতিক্রিয়া জানাবে বলে জার্মান সংসদের নথিতে বলা হয়েছে।

সূত্র-পিএল ইংলিশ।

Leave a Reply