করোনা যুদ্ধে একই মঞ্চে শাহরুখ, প্রিয়াঙ্কা ও লেডি গাগা

করোনা যুদ্ধে একই মঞ্চে শাহরুখ, প্রিয়াঙ্কা ও লেডি গাগা

করোনার এই ক্রান্তকালে একজোট গোটা বিশ্ব। এই ‘গ্লোবাল ক্রাইসিস-র মোকবেলার জন্য একমঞ্চে শামিল দুনিয়ার তাবড় তাবড় শিল্পীরা।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং গ্লোবাল সিটিজেন সংগঠনের উদ্যোগে ভারতীয় সময়ানুসারে রবিবার ভোরে অনুষ্ঠিত হলো ‘ওয়ান ওয়ার্ল্ড: টুগেদার অ্যাট হোম’। বাড়ি বসেই এই অনুষ্ঠানে যোগ দিলেন লেডি গাগা, টেলর সুইফট, বিয়ন্সে,বিলি এলিস, দ্য রোলিং স্টোনের মতো গ্লোবাই আইকনরা। দু’ঘন্টা ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে ভারতের প্রতিনিধি হিসাবে পাওয়া গেল শাহরুখ খান ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাসকে। 

অনুষ্ঠানটির ক্রিয়েটিভ হেডের দায়িত্ব পালন করেছেন লেডি গাগা। সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন জিমি কিমেল, স্টিফেন কোলবার্ট এবং জিমি ফ্যালন। সব মিলিয়ে গোটা বিশ্বের প্রায় ১০০ জনের বেশি তারকা অংশ নেন এই অনুষ্ঠানে।

করোনা সংকটে প্রয়োজন প্রচুর পরিমাণ অর্থের। সেই অর্থসংগ্রহের জন্য এবং করোনা যুদ্ধে এক্কেবারে সামনের সারিতে থাকা যোদ্ধা অর্থাত্ জরুরি পরিষেবায় যাঁরা নিযুক্ত রয়েছেন সেই সব চিকিত্সক, নার্স, পুলিশকর্মী সহ বাকি সকলকে ধন্যবাদ জানাতেই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন।

ভারতের করোনা পরিস্থিতির সার্বিক চিত্র তুলে ধরেন শাহরুখ খান। 

তিনি জানান, এই দেশ ১০০ কোটির বেশি মানুষের বসবাস এইদেশে। স্বাভাবিকভাবেই করোনার মতো মহামারীর ব্যাপক প্রভাব পড়েছে এদেশে। অভিনেতা আরও জানান কীভাবে তিনি এই পরিস্থিতিতে দেশবাসীর পাশে দাঁড়িয়েছেন এবং পিপিই কিট, কোয়ারেন্টিনে সেন্টারের সুবিধা দেওয়ার প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। 

সব শেষে শাহরুখ বলেন, মনে বিশ্বাস রাখো, আমি তোমাদের ভালোবাসি।

ইউনিসেফের দূত প্রিয়াঙ্কা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গেও। 

এই অভিনেত্রী বলেন, করোনা মহমারির এই সময়ে গোটা বিশ্বের শরণার্থী শিবিরগুলোর পরিস্থিতি কী, সেখানে কী সমস্যা দেখা দিচ্ছে। সেই শিবির গুলোতে বেসিক স্বাস্থ্য পরিষেবা, বিশুদ্ধ জল এবং স্যানিটাইজেশনের প্রয়োজন বলে জানান পিগি চপস।

বিশ্ববাসীকে আশার বার্তা দিয়ে বেশ কিছু গান গাইলেন লেডি গাগা। তিনি  চিকিত্সক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের ধন্যবাদ জানান। 

Leave a Reply