কলঙ্কিত ক্রিকেটারের মুদি দোকান দেওয়া উচিত : রমিজ

কলঙ্কিত ক্রিকেটারের মুদি দোকান দেওয়া উচিত : রমিজ

পাকিস্তান হলো ক্রিকেট ম্যাচ ফিক্সারদের তীর্থভূমি। দেশটির ক্রিকেটারদের নিয়মিতভাবে ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে পড়া যেন স্বাভাবিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তেমনই নিয়মিতভাবে শাস্তিও দেওয়া হচ্ছে। তবুও স্বভাব যায় না পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের। ম্যাচ পাতিয়ে যারা নিষিদ্ধ হওয়া মোহাম্মদ আমির, সালমান বাট কিংবা ইদানীংকালের শারজিল খানদের ভয়ংকর সব শাস্তি দেওয়ার কথা বলছেন দেশটির সাবেক ক্রিকেটাররা। 

মোহাম্মদ আমিরের মতো ক্রিকেটারদের দলে ফিরিয়ে আনায় বেজায় চটেছেন সাবেক ক্রিকেটার তথা বর্তমান ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা। তিনি পিটিআইকে বলেছেন, ‘আমাকে জিজ্ঞেস করলে বলব এসব কলঙ্কিত ক্রিকেটারদের মুদি দোকান খোলা উচিত। আমার কোনো সন্দেহ নেই বড় নামগুলোকে (আমিরের মতো ক্রিকেটার) ছাড় দিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেটেরই ক্ষতি হয়েছে। এখন আবার শারজিল খানকে ফেরানোর কথা হচ্ছে। এটা কোনোভাবেই ঠিক নয় এবং এই সিদ্ধান্ত পাকিস্তান ক্রিকেটের ক্ষতি করবে।’

এর আগে জাভেদ মিঁয়াদাদ ম্যাচ পাতানোর সঙ্গে সম্পর্কিত সবাইকে ফাঁসি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন। ফিক্সিংয়ে অভিযুক্ত রশিদ লতিফও পর্যন্ত বলেছেন, দেশের আইনে একে অপরাধ হিসেবে গণ্য করার আইন করা হোক। এমন অপরাধীদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে না ফিরিয়ে সংসার খরচের জন্য স্থানীয় ক্রিকেট খেলতে দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। রমিজ রাজা পাকিস্তান ক্রিকেটের স্বার্থে শুধু শারজিলের মতো ক্রিকেটারদেরই বাদ দিতে বলছেন না, মোহাম্মদ হাফিজ আর শোয়েব মালিকের মতো বয়স্ক ক্রিকেটারদেরও জাতীয় দল থেকে সরে যাওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

Leave a Reply