করোনা ঠেকাতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী

করোনা ঠেকাতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী

জরুরি অবস্থা ঘোষণা করার পরিকল্পনা আগেই করা হয়েছিল। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বেড়ে যাওয়ায় অবশেষে জাপানের রাজধানী টোকিওসহ একাধিক জায়গায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার এই ঘোষণা করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

জাপানের সাড়ে তিন হাজারেরও বেশি মানুষ মারণ এই ভাইরাসের সংক্রমণের শিকার হয়েছেন। কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে এরই মধ্যে জাপানে ৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। জাপানের রাজধানী টোকিওতে ব্যাপক হারে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে টোকিওতে একাধিক সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। জানা গেছে, শুধু টোকিওতেই হাজারেরও বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনা ঠেকাতে বিশ্বের অন্যান্য দেশের পথে হেঁটে গোটা দেশেই লকডাউন ঘোষণার পথে যাবেন না প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। সাধারণ মানুষকে করোনার সংক্রমণ সম্পর্কে আরো সচেতন করা হবে। প্রথমত মানুষকে বাইরে না বেরিয়ে বাড়িতে থাকার আহ্বান জানানো হবে। সমস্ত বাণিজ্যিক কাজকর্ম বন্ধ করা হবে।

মনে করা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলে, সেদেশের চিত্রটাও বদলাতে বাধ্য। করোনাভাইরাসের আক্রমণের জেরে জাপানে অর্থনৈতিক মন্দার পরিবেশ তৈরি হয়েছে। মন্দার হাত থেকে বাঁচতে ব্লুপ্রিন্ট তৈরি করেছে জাপান সরকার। অর্থনৈতিক মন্দা এড়াতে একশো বিলিয়ন ডলারের বিশেষ প্যাকেজের ঘোষণা সম্ভবত চলতি সপ্তাহেই ঘোষণা করতে পারেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

Leave a Reply