‘গার্মেন্ট শ্রমিকদের চরম হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে’

‘গার্মেন্ট শ্রমিকদের চরম হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে’

গার্মেন্ট শ্রমিকদের সাথে প্রহসন, হয়রানি ও মালিকদের স্বেচ্ছাচারিতার নিন্দা জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট। সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রাজেকুজ্জামান রতন ও সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব বুলবুল রবিবার এক বিবৃতিতে নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, একদিকে করোনা সংক্রমণের আতংক, অন্যদিকে গার্মেন্টস মালিকদের স্বেচ্ছাচারিতার কারণে গার্মেন্ট শ্রমিকদের চরম হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে।

বিবৃততিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ২৫ মার্চ সাধারণ ছুটি ঘোষণার ফলে মাসের শেষে শূন্য হাতে শ্রমিকদের বাড়ি ফিরতে হয়েছিল। আবার কারখানা চালু হওয়ার কথা শুনে এপ্রিলের শুরুতে পরিবহণ বন্ধ থাকা সত্ত্বেও অবর্ণনীয় কষ্ট সহ্য করে কারখানায় ফিরতে হয়েছে। এক্ষেত্রে নিরাপদ দূরত্ব রক্ষা দূরের কথা, স্বাভাবিক দূরত্বও রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। জীবনের ঝুঁকি ও করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশংকা নিয়ে শ্রমিকরা কারখানায় এসেছেন বেতনের আশায় ও চাকরি হারানোর আশংকায়। অথচ এখন বলা হচ্ছে, ১১ এপ্রিলের পর কারখানা খুলবে। এই অবস্থায় চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছেন গার্মেন্ট শ্রমিকরা।

বিবৃতিতে শ্রমিকদের জীবন, জীবিকা ও নিরাপদ দূরত্ব রক্ষার নিয়ম নিয়ে এই ছিনিমিনি খেলাকে অমানবিক বলে আখ্যায়িত করে এজন্য দায়ীদের শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানানো হয়েছে। এ জন্য ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে।

Leave a Reply