সৌদি আরবে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৩৪, আক্রান্ত ২৩৮৫

সৌদি আরবে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৩৪, আক্রান্ত ২৩৮৫

সৌদি আরবে ভয়াবহ আকার ধারণ করছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে ২০৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৩৮৫ জনে। মৃত্যু হয়েছে ৩৪ জনের।

সৌদি আরবের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. তৌফিক বিন ফাওজান আল-রাবিয়াহ এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার রোধে পবিত্র নগরী মক্কার ছয়টি জেলায় দিনরাত ২৪ ঘণ্টার কারফিউ জারি করেছে সৌদির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। স্থানীয় সময় সোমবার বিকেল ৩টা থেকেই কার্যকর হয়েছে এ নির্দেশনা। ২৪ ঘণ্টার কারফিউ জারি করা জেলাগুলো হলো- আজইয়াদ, আল মাসাফি, মিসফালাহ, আল হুজুন, নাকাসা ও হোশ বকর।

সরকারি নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এখন থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত এসব এলাকায় প্রবেশ বা বহির্গমন নিষিদ্ধ থাকবে। কারফিউ চলাকালীন সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৩টার মধ্যে শুধু চিকিৎসা ও নিত্যপণ্য কেনাকাটায় বাইরে যাওয়া যাবে।

এর আগে, গত ২৬ মার্চ থেকে সৌদি আরবের ব্যস্ততম এলাকা মক্কা, মদিনা ও রাজধানী রিয়াদে বিকেল ৩টা থেকে পরদিন সকাল ৬টা পর্যন্ত কারফিউ জারি হয়। ২৩ মার্চ থেকে দেশটিতে ২১ দিনের আংশিক কারফিউ শুরু হয়। তখন সন্ধ্যা ৭টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত কারফিউয়ের সময় ঘোষণা করা হয়েছিল। পরে মক্কা, মদিনা, রিয়াদ ও জেদ্দায় এর সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।

সৌদি আরবের সকল করোনাভাইরাস রোগীদের সরকারি ও বেসরকারিভাবে বিনামূল্যে চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ। দেশটির স্থায়ী ও অস্থায়ীসহ সব ধরণের বাসিন্দারা এ সেবা পাবেন।

সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ভাইরাসটির বিস্তার রোধে সরকার কর্তৃক জারি করা করোনাভাইরাস সাবধানতা মেনে চলতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

এছাড়া স্বাস্থ্য নির্দেশিকা যেমন- হাতধোয়া এবং করমর্দন না করা এবং শ্বাসতন্ত্রের অসুস্থতার লক্ষণগুলো দেখা দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ বন্ধ করার ওপর জোর দিয়েছে। জাতীয় দুর্যোগের এ সময়ে জনগণকে অবশ্যই আইসোলেশন এবং কোয়ারেন্টিনের নির্দেশাবলী মেনে চলতে বলা হয়েছে।

সূত্র- আল আরাবিয়া।

Leave a Reply