মাত্র ৬ মিনিটের ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ নিল করোনা!

মাত্র ৬ মিনিটের ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ নিল করোনা!

৫১ বছর ধরে একসঙ্গে আছেন তারা। একজনের বয়স ৭০ অন্যজন ৭২। এতদিন পর্যন্ত কোনও জটিল রোগও ছুঁতে পারেনি তাদের। সম্পর্কে খুনসুটি-ঝগড়া ছিল বটে, তবে তার মেয়াদ বেশিদিন নয়। অবশেষে করোনার ছোবলেই প্রাণ হারাতে হলো হাফ-সেঞ্চুরি পেরনো এই রোমান্টিক এই দম্পতির। মাত্র ৬ মিনিটের ব্যবধানেই ওপারে চলে গেলেন স্বামী-স্ত্রী!

কোভিড-১৯ সংক্রমণে মারাত্মক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন স্বামী-স্ত্রী দু’জনেই। শেষ পর্যন্ত মারাও গিয়েছেন দু’জনেই। তবে অন্তরের টান বোধহয় একেই বলে, কারণ মাত্র ৬ মিনিটের ব্যবধানে মৃত্যু হয়েছে এই ‘লাভবার্ডস’ দম্পতির। গত ২৯ মার্চ ফ্লোরিডায় মৃত্যু হয়েছে আদ্রিয়ান বেকার এবং তার স্ত্রী স্টুয়ার্টের।

টুইটারে বাবা-মায়ের মৃত্যুর খবর শেয়ার করেছেন এই দম্পতির একমাত্র ছেলে বাডি বেকার। তিনি জানিয়েছেন, অসুস্থ হওয়ার পর ডাক্তারের কাছে গিয়েছিলেন তার মা-বাবা। সাধারণ ওষুধপত্র দিয়ে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেন ওই ডাক্তার। বলেন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে। এরপর সপ্তাহ তিনেক কেটে গেলেও শারীরিক অবস্থার উন্নতির বদলে আরও অবনতি হতে থাকে ওই বৃদ্ধা-বৃদ্ধার। লক্ষণ দেখে বিষয়টা ভাল লাগেনি ডাক্তারের। এবার দম্পতিকে হাসপাতালে ভর্তি করার ব্যবস্থা করেন তিনি।

বাডি জানিয়েছেন, ১৯ মার্চ তার মাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তীব্র শ্বাসকষ্ট এবং জ্বর ছিল তার। সেসময় আদ্রিয়ানের জ্বর না থাকায় তাকে প্রথমে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও পরে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে সেলফ আইসোলেশনে থাকার পরামর্শও দেওয়া হয় আদ্রিয়ানকে। কিন্তু স্টুয়ার্টের শরীর ক্রমাগত খারাপ হতে থাকে। শরীরে কমতে থাকে অক্সিজেনের মাত্রা। সিভিয়ার অ্যাজমা রোগী ছিলেন তিনি। এরই মধ্যে টেস্টের রিপোর্ট এলে জানা যায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন স্টুয়ার্ট। আদ্রিয়ানের শরীরেও পাওয়া যায় কোভিড-১৯ সংক্রমণের নমুনা।

২৪ মার্চ স্টুয়ার্ট এবং আদ্রিয়ানের কোভিড ১৯ পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এরপর থেকে তাদের সুস্থ করার সমস্ত চেষ্টাই করেছেন চিকিৎসকরা। তবে কোনও ওষুধেই আর কাজ হয়নি। শেষ পর্যন্ত ২৯ মার্চ মারা যান দুজনেই। মাত্র ৬ মিনিটের ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর এমন মৃত্যুর ঘটনা দেখে হতবাক চিকিৎসকরাও।

সূত্র- ইন্ডিয়া টুডে।

Leave a Reply