পরিবার ও প্রতিবেশীর প্রতি আপনার দায়বদ্ধতা রয়েছে: ডেপুটি স্পিকার

পরিবার ও প্রতিবেশীর প্রতি আপনার দায়বদ্ধতা রয়েছে: ডেপুটি স্পিকার

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় নিজ নির্বাচিত এলাকা গাইবান্ধা ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলাবাসীর জন্য বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া। বৃহস্পতিবার এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেছেন, বিশ্ববাসীকে আজ এক মহা সংকটের মোকাবেলা করতে হচ্ছে। আপনারা যদি আতঙ্কিত না হয়ে সতর্কতা ও সচেতনতার সাথে অবস্থান করেন তাহলে অতি অল্প সময়ে এ সংকট মোকাবেলায় সম্ভব হবে।

ডেপুটি স্পিকার বলেন, বাংলাদেশেও করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ইতিমধ্যে পরিলক্ষিত হয়েছে। তবে আতঙ্কিত হবার কিছু নেই। সরকার এ ভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করতে সদা সচেষ্ট। সরকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের কোনও প্রতিষেধক যেহেতু এখনও আবিষ্কার হয়নি, কিন্তু প্রতিরোধমূলক কিছু ব্যবস্থা গ্রহণ করলে এ ভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করা যায়। তাই আপনাদের কাছে আমার বিনীত অনুরোধ, আপনারা কয়েকটা দিন সকল প্রকার গণসমাবেশ ও অহেতুক ঘোরাফেরা এড়িয়ে চলুন। নিজ গৃহে অবস্থান করুন। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বাহির হবেন না। স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলুন। সাবান বা হ্যান্ড সেনিটাইজার দিয়ে বারবার হাত ধুয়ে ফেলুন। মাস্ক ব্যবহার করুন। সরকার ঘোষিত যে কোন নির্দেশনা মেনে চলুন। টেলিভিশনে নিয়মিত বুলেটিন দেখুন। করোনা প্রতিরোধে নির্দেশনা নিজে বুঝুন, অন্যকেও বোঝান।

গাইবান্ধাবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে মো. ফজলে রাব্বী বলেন, কারো মধ্যে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ দেখা দিলে সাথে সাথে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ফোন করুন। যেকোনো দুর্যোগে বর্তমান জন-বান্ধব সরকার আপনাদের পাশে ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে। তবে মনে রাখবেন, পরিবার ও প্রতিবেশীর প্রতি আপনার দায়বদ্ধতা রয়েছে। সচেতন হউন, অন্যকে সচেতন করুন। নিজে বাঁচুন অন্যকেও বাঁচতে সাহায্য করুন। বিপদেই মনুষ্যত্বের আসল পরিচয়। তাই অবিবেচকের মত নিজের এবং অন্যের জীবনকে হুমকির মুখে ঠেলে দিবেন না। এ দেশ আপনার আমার সকলের।

Leave a Reply