কোয়ারেন্টিনের নিয়ম জানতেন না ইয়োভিচ

কোয়ারেন্টিনের নিয়ম জানতেন না ইয়োভিচ

২৮ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা রিয়াল মাদ্রিদের সার্বিয়ান স্ট্রাইকার লুকা ইয়োভিচের। কিন্তু দুই দিন না যেতেই গত বুধবার বাইরে বেরিয়ে আসেন তিনি। প্রেমিকার জন্মদিন উদ্‌যাপন করতেই রাস্তায় বেরিয়েছিলেন। কিন্তু ধরা পড়ে যাওয়ায় এখন আছেন পুলিশের কড়া নজরদারিতে। এ ছাড়া কোয়ারেন্টিন শেষ না করে বাইরে বেরোনোর জন্য চারদিকে সমালোচনার তিরও ধেয়ে আসছে রিয়াল স্ট্রাইকারের দিকে।

এমনিতে করোনাভাইরাস পরীক্ষায় তাঁর ফল নেগেটিভ এসেছে। রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ছুটি নিয়ে তাই সার্বিয়াতে ফিরেছেন। সার্বিয়ার নিয়ম অনুযায়ী তাঁকে ২৮ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা। এই নিয়ম ভাঙার জন্য সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন ইয়োভিচ। একই সঙ্গে তিনি বলেছেন, কোয়ারেন্টিনের নিয়মটা আসলে জানতেনই না ভালো করে।

ইয়োভিচ ঘর থেকে বেরোনোর ব্যাখ্যা দিয়েছেন এভাবে, ‘নিয়মটা আমি ভালো করে জানতাম না বলেই ঘর থেকে বেরিয়েছি। জানি এটা বিশ্বাস করা কঠিন। কিন্তু আমি সত্যি কথাই বলছি যে নিয়মটা জানতাম না।’ নিয়মের কোন অংশটি জানতেন না সেই ব্যাখ্যাও দিয়েছেন ইয়োভিচ, ‘আমি যে দেশ (স্পেন) থেকে এসেছি, এমনকি ইতালিতেও কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিরা দিনে একবার ময়লা ফেলতে বাইরে যেতে পারে অথবা ফার্মেসি বা দোকানে প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে যেতে পারে। ইন্টারনেটে তো এগুলো দেখি আমরা।’

ইয়োভিচ ভেবেছিলেন সব দেশেই হোম কোয়ারেন্টিনের একই নিয়ম। তবে সবকিছুর পরও নিজের ভুলটা স্বীকার করে নিয়েছেন ইয়োভিচ, ‘এটা আমার ভুল যে ভালোভাবে খোঁজ নিইনি। তবে এটাও ঠিক যে কর্তৃপক্ষেরও উচিত শর্তগুলো ভালোভাবে বুঝিয়ে দেওয়া। বিশেষ করে যারা বিদেশ থেকে আসছে, তাদের বেলায় তো এটা করতেই হবে।’

Leave a Reply