‘করোনার বিপক্ষে ম্যাচটা খেলতে হবে বাসায় থেকে’

‘করোনার বিপক্ষে ম্যাচটা খেলতে হবে বাসায় থেকে’

করোনাভাইরাসের প্রকোপ ছড়াচ্ছে দেশ-দেশান্তরে। এ অবস্থায় ঘরে চুপচাপ বসে থেকে নিজেকে আলাদা রাখার কোনো বিকল্প নেই। প্রাণে বাঁচতে সবাইকে সেই কাজটা করার আহ্বানই জানিয়েছেন বেশ কিছু খেলোয়াড়

মানবসংস্পর্শ এড়িয়ে চলতে হবে যেকোনো মূল্যে। যেখানে মানুষের জমায়েত, সেখানে যাওয়া যাবে না। কফ, থুতু যত্রতত্র ফেলা যাবে না। হাঁচি-কাশি আসলে মাস্ক বা রুমাল ব্যবহার করতে হবে। করোনাভাইরাস এড়াতে তাই ঘরে বসে থাকার বিকল্প নেই। সেই কাজটা করার জন্যই মানুষকে উদ্বুদ্ধ করা শুরু করেছেন ফুটবল তারকারা।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁরা একটা ‘ক্যাম্পেইন’ শুরু করেছেন। মানুষকে ঘরের মধ্যে বসে থাকতে বলা এ ক্যাম্পেইনের নাম ‘হ্যাশট্যাগ স্টে অ্যাট হোম (বাসায় থাকুন)’। এই ক্যাম্পেইনে অংশ নিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদের বেশ কিছু খেলোয়াড়। এদের মধ্যে রয়েছেন দলটির অধিনায়ক সার্জিও রামোস, মার্সেলো, করিম বেনজেমা ও রাফায়েল ভারান।

রিয়াল কিংবদন্তি আলফ্রেড ডি স্টেফানোর একটা উক্তি ধরে মানুষকে বাসায় বসে থাকার জন্য উদ্বুদ্ধ করেছেন রামোস, ‘আমাদের সর্বজনশ্রদ্ধেয় আলফ্রেডো ডি স্টেফানো যা বলতেন, কোনো খেলোয়াড়ই একা একা ভালো হতে পারে না, শুধুমাত্র একটা দলের অংশ হলেই সে ভালো করতে পারে। এই ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। আমরা সবাই একটা দল। আমাদের সবাইকে একটা দল হয়ে লড়তে হবে করোনাভাইরাসের বিপক্ষে। আমাদের সবাইকে যার যার জায়গা থেকে ভূমিকা রাখতে হবে। এটা অনেক সহজ একটা কাজ। শুধু বাসায় বসে থাকুন। এটা আমাদের সবার দায়িত্ব। আমিও ঘরে বসে থাকছি।’

রামোসের সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন দলের বাকি তিন অভিজ্ঞ সদস্য করিম বেনজেমা, মার্সেলো ও রাফায়েল ভারান। তাঁরা বলেছেন, ‘করোনাভাইরাসের বিপক্ষে এই ম্যাচটা আমাদের বাসায় থেকেই খেলতে হবে। এটা সবার দায়িত্ব। আমি বাসায় থাকছি। আপনিও থাকুন।’

এদিকে ‘স্টে অ্যাট হোম চ্যালেঞ্জ’ করতে গিয়ে মজার ভিডিও বানিয়েছেন আর্সেনালের ডিফেন্ডার শকোদ্রান মুস্তাফি। ভিডিওতে দেখা গেছে, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুতে ধুতে বল নিয়ে জাগলিং করছেন এই জার্মান ডিফেন্ডার। আর তা মুগ্ধ দৃষ্টিতে তাকিয়ে দেখছে ও আনন্দ করছে মুস্তাফির দুই শিশুসন্তান।

Leave a Reply