চুল কেটে ফেললেন পরী

চুল কেটে ফেললেন পরী

ভাইরে ভাই, কি হইছে, জীবনে তো বহুত কিছু প্ল্যান কইরা ধরা খাইছি, ধাম কইরা করি এইবার, খাইলাম না হয় ধরা আর একটু, কি আছে জীবনে, আমি ছাড়া।’ কদিন আগে ফেসবুকে এমন একটি পোস্ট দিয়েছেন পরীমণি। বন্ধু ও অনুসারীরা এটি বুঝে নিয়েছেন তাঁদের নিজেদের মতো। মন্তব্যও করেছেন সে রকম। কিন্তু আসল ঘটনা কেউ আন্দাজ করতেই পারেননি।

পরীর ছিল দীঘল চুল। গত বৃহস্পতিবার সেই চুল কেটে ছোট করে ফেলেছেন তিনি। চরিত্রের প্রয়োজনে চার ভাগের তিন ভাগ চুলই ফেলে দিতে হয়েছে তাঁর। চুল কাটার পরই ফেসবুকে ওই পোস্টটি লেখেন তিনি। গত শনিবার থেকে শুরু হয়েছে পরীর নতুন ছবি ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’-এর শুটিং। ছবিতে চিলড্রেন ফিল্ম সোসাইটির অর্গানাইজার হিসেবে অভিনয় করছেন পরীমণি। তাঁর চরিত্রের নাম ত্রিশা।

চুলের ব্যাপারে পরীমণি রক্ষণশীল। তিনি বলেন, ‘চুলগুলো খুব প্রিয় ছিল আমার। চরিত্রের প্রয়োজনে কেটে ফেললাম। সিনেমার জন্যই আজ আমি পরীমণি। সুতরাং চরিত্রের প্রয়োজনে এ কাজ করা আমার জন্য কঠিন মনে হয়নি।’
ছবির পরিচালক ও প্রযোজক মনে করেছিলেন, পরী হয়তো চুল কাটতে রাজি হবেন না। কিন্তু সবাইকে বিস্মিত করে তিনি কেটে ফেলেছেন নিজের চুল। ছবির পরিচালক আবু রায়হান জুয়েল জানান প্রথমে চুল কাটতে রাজি হননি পরীমণি। প্রয়োজনে ছবি থেকে বাদ দেওয়ার কথাও বলেছিলেন। পরে নিজেই পারলারে গিয়ে চুল কেটে ফেলেন। আবু রায়হান বলেন, ‘শুরুতে তিনি চুল কাটতে রাজি হননি। সেটা যে মজা করে বলেছিলেন, বুঝিনি। তিনি নিজেই পারলারে গিয়ে চুল কেটে ফেলার খবর দেন। প্রথমে বিশ্বাস করিনি। শনিবার যখন তিনি সদরঘাটে এলেন, দেখে তো আমরা অবাক।’

এ ছবিতে পরীর চরিত্র একজন স্বাধীনচেতা মেয়ের। চুল কেটে সেভাবেই তাঁর গেট-আপ তৈরি করা হয়েছে। শনিবার ঢাকার সদরঘাট থেকে সকাল সাড়ে দশটায় প্রায় ১২০ জনের একটি দল লঞ্চে করে শুটিং করতে করতে সুন্দরবনের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে।

বাংলাদেশ সরকারের অনুদানের এই ছবিতে সহ-প্রযোজক হিসেবে আছে বঙ্গ বিডি। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক মুশফিকুর রহমান নিজেও যোগ দিয়েছেন শুটিংয়ে। রোববার দুপুরে মুঠোফোনে তিনি বলেন, ‘গতকাল রাতে চাঁদপুরে লঞ্চ অবস্থান করেছিল। এখন শুটিং করতে করতে বরিশালের দিকে যাচ্ছে লঞ্চটি। এভাবে পানিপথে প্রায় ২৫ দিন শুটিং চলবে। মাঝে পাঁচ দিন কাজ হবে সুন্দরবনে।’

শিশুদের ভ্রমণের গল্প নিয়ে লেখক মুহম্মদ জাফর ইকবালের উপন্যাস ‘রাতুলের রাত রাতুলের দিন’ থেকে এ ছবির চিত্রনাট্য করেছেন জাকারিয়া সৌখিন। এ ছবিতে আরও অভিনয় করছেন সিয়াম আহমেদ, শহিদুল আলম সাচ্চু, আজাদ আবুল কালাম, কচি খন্দকার, আশীষ খন্দকারসহ প্রায় ২০ জন শিশুশিল্পী। গত শনিবার শুটিংয়ের উদ্দেশে যাত্রা করার আগে সদরঘাট লাল কুঠিতে ছবির মহরত অনুষ্ঠিত হয়। সেদিন উপস্থিত ছিলেন লেখক মুহাম্মদ জাফর ইকবাল ও ছবির কলাকুশলীরা।

Leave a Reply