শিশুদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কতটুকু?

শিশুদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কতটুকু?

সারা বিশ্বে করোনাভাইরাসে ৯১ হাজারের মতো মানুষ আক্রান্ত। এখন পর্যন্ত মারা গেছে তিন হাজারের বেশি মানুষ। সেই তালিকা থেকে বাদ পড়েনি শিশুরাও। পিতা-মাতারা যদিও শিশুদের স্বাস্থ্যের বিষয়ে অনেক সচেতন তবে এটাও মাথায় রাখা উচিত যে, এরই মধ্যে বেশ কিছু শিশু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, সৌদি আরবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা শতকরা ৩.৪ ভাগ যেখানে ১৯ বছরের নিচে শতকরা ১৫ ভাগ। চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা ৪১৬ যা দেশটিতে মোট করোনায় আক্রান্ত রোগীর ১ শতাংশ। অস্ট্রেলিয়াতে করোনাতে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা মাত্র ১ জন। এখন প্রশ্ন আসতে পারে করোনাতে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা কম কেন?

বলা হচ্ছে, কম সংখ্যক শিশু ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হচ্ছে। শিশুরা কম ভাইরাস দ্বারা সংক্রমিতও হচ্ছে। এছাড়াও যেসব শিশুরা আক্রান্ত হয়েছে তাদের লক্ষণ দেখা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই পরিচর্যা করা হচ্ছে।

করোনাভাইরাসে শিশুর কি কি লক্ষণ দেখা দিতে পারে?

চীনা চিকিৎসকদের মতে, শিশুদের ক্ষেত্রে করোনার লক্ষণ হতে পারে কফ, সর্দি, কাশি, নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া, ডাইরিয়া, মাথা ব্যথা। কিছু শিশুদের জ্বর থাকে। তবে কিছু শিশুর কোনো লক্ষণ প্রকাশ নাও পেতে পারে। চীনের বেশ কিছু শিশুর হালকা ইনফেকশন ছিল। যা অল্প সময়ের চিকিৎসার মাধ্যমেই ঠিক হয়ে গেছে।

করোনা প্রতিরোধ করতে কয়েকটি ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে

এই মারণ ভাইরাস প্রতিরোধে সাবান বা হ্যান্ড ওয়াশ দিয়ে হাত ধোতে হবে, মাস্ক ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে সবমিলিয়ে সচেতনতাই দিতে পারে করোনা থেকে মুক্তি।

Leave a Reply