জাপানে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

জাপানে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

জাপানের টোকিওস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে যথাযথ ভাবগাম্ভীর্য ও মর্যাদায় মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২০ পালিত হয়েছে ।

ভাষা শহিদদের স্মরণে আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭ টায় অনুষ্ঠান শুরু হয় ইকেবুকুরো নিশিগুচি পার্কে অবস্থিত শহিদ মিনার বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে। ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ একথা জানা গেছে।

প্রথমে দূতাবাসের চার্জ দ্যা এফেয়্যারস ড. শাহিদা আকতারের নেতৃত্বে দূতাবাসের সকল কর্মকর্তাগণ ও তোশিমা সিটির ভাইস মেয়র মাসাতো সাইতো পুস্পস্তবক অর্পণ করেন এবং পরে প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিক ও অন্যান্য অতিথিরা প্রভাতফেরীর মাধ্যমে শহিদ মিনার বেদীতে পুস্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানান।

অনুষ্ঠানের পরবর্তী অংশে দূতাবাস প্রাঙ্গণে চার্জ দ্যা এফেয়্যারস কর্তৃক আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করা হয়। এসময় উপস্থিত সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী ও আগত অতিথিকর্তৃক জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া হয়। অতঃপর ভাষা শহিদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন এবং তাঁদের আত্মার মাগফেরাত ও বাংলাদেশের সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

এছাড়া দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে উপস্থিত দেশি-বিদেশি নাগরিকদের নিয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শহিদ দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দেয়া বাণী পাঠ করেন যথাক্রমে দূতাবাসের কাউন্সেলর ড. জিয়াউল আবেদিন, ড. আরিফুল হক, মো. জাকির হোসেন এবং প্রথম সচিব মুহা. শিপলু জামান।

পরে চার্জ দ্যা এফেয়্যারস ড. শাহিদা আকতার স্বাগত বক্তব্য দেন। এসময় তিনি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। তিনি ভাষা শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান এবং ভাষা আন্দোলনের পটভূমি ও তাৎপর্য তুলে ধরেন। তিনি মুজিব বর্ষ উপলক্ষে দূতাবাসের আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের জন্য প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি আহবান জানান।

এতে উম্মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন জাপান প্রবাসী বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ। এছাড়া ভাষা আন্দোলন ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের উপর একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। এসময় দূতাবাসের কর্মকর্তা- কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন দূতাবাসের প্রথম সচিব আরিফ মোহাম্মদ।

Leave a Reply