ভাষা শহীদদের ঋণ শোধ হবার নয় : শিল্পমন্ত্রী

ভাষা শহীদদের ঋণ শোধ হবার নয় : শিল্পমন্ত্রী

শিল্পমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, ভাষা আন্দোলনে যারা শহীদ হয়েছেন তাদের ঋণ কখনো শোধ করা যাবে না। যতদিন বাংলাদেশ থাকবে ততদিন ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করতে হবে।

আজ রবিবার সন্ধ্যায় নরসিংদীর মনোহরদী সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে নান্দনিক কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

এ সময় ভাষা সৈনিকদের রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। প্রায় ১৪ লাখ টাকা ব্যয়ে কেন্দ্রীয় এই শহীদ মিনারটি নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করেছে মনোহরদী পৌরসভা। অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ছিলেন মনোহরদী পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ আমিনুর রশিদ সুজন।

বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা করার জন্য যে সকল সূর্য্যসন্তান শহীদ হয়েছেন তাদের স্মরণে দৃষ্টিনন্দন এই শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়। নয়নাভিরাম পরিবেশে দৃষ্টিনন্দন এ শহীদ মিনারটি ইতিমধ্যে স্থানীয়দের নজর কড়েছে। প্রশংসা করেছেন উপস্থিত অতিথিরাবৃন্দরা।

মনোহরদী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম ফারুকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মু. ফজলুল হক, নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাাদক নজরুল মজিদ মাহমুদ স্বপন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইকবাল হাসান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াশীষ রায়, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এমএস ইকবাল আহমেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা সুলতানা রুবী, মনোহরদী থানার ওসি মো. মনিরুজ্জামান, উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মতিউর রহমান তারা প্রমুখ।

শহীদ মিনারের প্রশংসা করে শিল্পমন্ত্রী আরো বলেন, ভাষার মাসে মনোহরদী পৌরসভা নিঃসন্দেহে একটি ভালো কাজ করেছে। এতদিন পর সুন্দর পরিবেশে মনোহরদীবাসী ভাষা সৈনিকদের শ্রদ্ধার জন্য উপযুক্ত একটি শহীদ মিনার পেয়েছে।

পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ আমিনুর রশিদ সুজন বলেন, মনোহরদীতে ভাষা সৈনিকদের শ্রদ্ধার জন্য যথাপোযুক্ত কোনো শহীদ মিনারের দাবি ছিল সব শ্রেণির মানুষের। তাই ভাষার মাসে মনোহরদীবাসীর জন্য নান্দনিক একটি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়েছে। আশা করি এই শহীদ মিনার এলাকার মানুষের দৃষ্টি কাড়বে।

উদ্বোধন শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এতে গান পরিবেশন করেন সুকুমার বাউল।

Leave a Reply