ঘূর্ণিঝড় সিয়ারায় লণ্ডভণ্ড ইউরোপের কয়েকটি দেশ

ঘূর্ণিঝড় সিয়ারায় লণ্ডভণ্ড ইউরোপের কয়েকটি দেশ

ঘূর্ণিঝড় সিয়ারার আঘাতে লণ্ডভণ্ড ইউরোপের কয়েকটি দেশ। স্থানীয় সময় রবিবার উত্তর ইংল্যান্ডে ঘণ্টায় ১২৯ কিলোমটির গতিতে ঝড়টি আঘাত হানে।

এতে অসংখ্য ঘরবাড়িসহ রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভারী বৃষ্টিতে দেখা দিয়েছে বন্যা। তাণ্ডব চালিয়েছে প্রতিবেশী দেশ ফ্রান্স ও জার্মানিতেও। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বিভিন্ন রুটের ট্রেন চলাচল। বাতিল করা হয় দুইশ’টির বেশি ফ্লাইট।

রবিবার লন্ডনের হিথ্রো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় সিয়ারা ঝড়ের কবলে পড়ে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের যাত্রীবাহী এ বিমান। প্রথমবার বিমানের চাকা রানওয়ে স্পর্শ করলেও ঝড়ের কাছে হারমানে পাইলট। বাধ্য হন আবারো আকাশে উড়তে। দক্ষ চালকের দ্বিতীয়বারের সাহসী চেষ্টায় নিরাপদ অবতরণ করে বিমানটি। রক্ষা পান যাত্রীরা।

ঘণ্টায় ১২৯ কিলোমিটার গতিতে আঘাত হানা ঝড়ের তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে নর্দান ইংল্যান্ডের বিভিন্ন অঞ্চল। ঝড়ে অসংখ্য ঘরবাড়িসহ রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভারী বৃষ্টিপাতে দেখা দিয়েছে ভয়াবহ বন্যা। পানিতে তলিয়ে গেছে বাড়ি-ঘর ও দোকান-পাট। যুক্তরাজ্যের দুইশো’র বেশি স্থানে বন্যা সতর্কতা জারি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন কয়েক লাখ বাসিন্দা।

ব্রিটেনে আঘাত হানার পাশাপাশি সিয়ারা নাম পরিবর্তন করে সাবিন নামে জার্মানিতে আঘাত হানে ঝড়টি। সাবিনের কারণে দেশটির বিভিন্ন রুটের ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। বাতিল করা হয় অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট।

স্থানীয়রা বলছে, বার্লিনে ব্যবসায়িক কাজে একজনের সাথে আমার সাক্ষাতের কথা ছিল। সেখানে যাওয়ার টিকেট কেটেছিলাম। আবহাওয়ার যে অবস্থা, মনে হয় সেটা সম্ভব হবে না।

আমরা মায়োরকা থেকে এসেছি। আমাদের পেডারবন যাওয়ার কথা। কিন্তু সব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। কখন চালু হবে সে বিষয়েও সঠিক কোনো তথ্য দিতে পারছে না।

জার্মানি ছাড়াও ফ্রান্স উপকূলেও আঘাত হানে ‘সিয়ারা’। ঝড়ের কারণে উত্তর ইউরোপজুড়ে সব ধরনের ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখা করে দেয়া হয়।

Leave a Reply