তুষার পড়ছে, তবুও পর্যটক নেই চীনে

তুষার পড়ছে, তবুও পর্যটক নেই চীনে

মওসুমের দ্বিতীয় তুষারপাতের দিনেও বেইজিংয়ে পর্যটক নেই। অন্য বছর এ সময় পর্যটকে ঠাসা থাকে শহরের সব জায়গা। পুরোদস্তুর উৎসবের মেজাজ এনে দেয় তুষারপাতের ঘটনা।

অথচ করোনাভাইরাসের ভয়ে এবার থমথম করছে চীনের রাজধানী বেইজিং। সে দেশের প্রধান বাণিজ্যিক কেন্দ্র সাংহাইয়ের মতো শহরও ফাঁকা।

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জেরে মানুষ ঘরবন্দি থাকার কারণে বড় বড় শহরগুলো দৃশ্যতই ভুতুড়ে চেহারা নিয়েছে। এর মধ্যেও সাহস করে কেউ কেউ বাইরে বের হচ্ছেন।

যদিও প্রাণের ভয় থাকলেও তুষারপাত হতে দেখে আর ঘরে থাকতে পারেনি বেইজিংয়ের কুইআয়ো পরিবার। সেই পরিবারের একজন বলেন, আমরা জানি পরিস্থিতি খুবই খারাপ। কিন্তু যেহেতু উৎসস্থল থেকে আমরা অনেকটা দূরে, তাই একটু ঝুঁকি নিয়েই বেরিয়েছি। পরিবারের সঙ্গে বরফের মধ্যে মজা করার সুযোগ তো বড় একটা আসে না।

তবে তাদের সংখ্যা হাতেগোনা। শহরের একটি পার্কের রক্ষী জানান, এবার তুষারপাতের মওসুমে তিন ভাগের এক ভাগ লোকেরও দেখা মেলেনি। এমনকি বেইজিংয়ের ‘ফরবিডন সিটি’-র মতো জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্রগুলোতেও হাতেগোনা লোক।

এক পথচারীর কথায়, এখন এখানে পর্যটকদের তুলনায় নিরাপত্তা রক্ষী ও সাফাইকর্মীদের সংখ্যা বেশি। সংক্রমণ ঠেকাতে সরকার বেশি লোকের জমায়েত এমনকি একসঙ্গে খাওয়াদাওয়া নিষিদ্ধ করায় বার, রেস্তরাঁ ব্যবসা মার খাচ্ছে।

Leave a Reply