মুজিবনগরে অত্যাধুনিক পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে

মুজিবনগরে অত্যাধুনিক পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, মুজিবনগরে ইতিহাস সমৃদ্ধ একটা অত্যাধুনিক পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। মুজিবনগর পর্যটন কেন্দ্রে নামমাত্র মূল্যে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়কে দিয়েছেন পর্যটন কর্পোরেশন। আমরা সেটাকে ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে গড়ে তুলতে চাই।

শনিবার বিকেলে গাজীপুরের কালিয়াকৈরের চন্দ্রা এলাকায় চন্দ্রা পিকনিক স্পট অ্যান্ড হাইওয়ে রেস্টুরেন্ট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, দেশকে সমৃদ্ধ করতে পর্যটন শিল্প আমাদের অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে পারে। সিঙ্গাপুর শুধু একটা বিমানবন্দর ও নৌবন্দরের উপর চলে। বাংলাদেশের ঐতিহাসিক স্থানের জন্য মানুষকে আকৃষ্ট করে আমরা কাজে লাগাতে পারিনি।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জিয়াউর রহমান ৬ বছর, এরশাদ ১০ বছর, খালেদা জিয়া ১০ বছর সামরিক শাসনসহ প্রায় ৩০ বছর রাষ্ট্র পরিচালনা করেছেন। কিন্ত তারা পর্যটন শিল্পকে গুরুত্ব দেননি। আমরা বঙ্গবন্ধুর সময় সাড়ে ৩ বছর আর শেখ হাসিনার সময় ১৬ বছর দেশ পরিচালনা করেছি। দেশরত্ন শেখ হাসিনা পর্যটন শিল্পের গুরুত্ব উপলব্ধি করে অনেক বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। এই শিল্পের মাধ্যমে আমাদের সুনাম যেমন মানুষের কাছে ছড়িয়ে পড়বে একই সাথে আমাদের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি বিকশিত হবে।

ঢাকা রিসোর্টের চেয়ারম্যান এমারত হোসেন সোহাগের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) রাম চন্দ্র দাস, গাজীপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) এস এম তরিকুল ইসলাম, কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী হাফিজুল আমীন, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সিকদার মোশারফ, কালিয়াকৈর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন জয়, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জয়, ঢাকা রিসোর্টের ব্যবস্থপনা পরিচালক ইঞ্চিনিয়ার সজীবুল আল রাজিব প্রমুখ।

Leave a Reply