সৌদি যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে ইসরায়েলিরা

সৌদি যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে ইসরায়েলিরা

ইসরায়েলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরিহি দিরি জানিয়েছেন, দেশটির নাগরিকরার প্রথমবারের মতো সৌদি আরব যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে। ধর্মীয় বা ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে সৌদিতে তারা ভ্রমণ করতে পারবে। আজ রবিবার তিনি এই তথ্য জানান।

আরবের কোনো দেশের সঙ্গেই ভালোই সম্পর্ক নেই ইসরায়েলের। তবে মধ্যপ্রাচ্যে মিশর ও জর্ডানের সঙ্গে ইসরায়েলের শান্তি চুক্তি রয়েছে। তাই বর্তমান সময়ে ইরানের ক্রমবর্ধমান প্রভাব ঠেকাতে অঞ্চলটির অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে সখ্যতা বাড়াতে চাইছে ইসরায়েল।

এদিকে, ইসরায়েলের ও সৌদি আরবের মধ্যে আনুষ্ঠানিক কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো সম্পর্ক না থাকলেও সম্প্রতি সৌদি আরব ও ইসরায়েলের মধ্যে গোপন সহযোগিতা সম্পর্ক রয়েছে বলে দাবি করে সুইজারল্যান্ডের একটি দৈনিক পত্রিকা।

মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের ক্রমবর্ধমান প্রভাব ও শক্তি মোকাবিলায় ইসরায়েল চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাই তারা সৌদি আরবের সঙ্গে এক ধরনের সখ্যতা গড়ে তুলেছে। এই সম্পর্ক ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছে। আর এরই ফল হিসেবে সৌদি আরব ভ্রমণের অনুমতি পেল ইসরায়েলের নাগরিকরা।

সূত্র: ওয়াশিংটন টাইমস।

Leave a Reply