রেনু হত্যার প্রতিবেদন পিছিয়ে ২০ ফেব্রুয়ারি

রেনু হত্যার প্রতিবেদন পিছিয়ে ২০ ফেব্রুয়ারি

রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় সন্তানকে স্কুলে ভর্তির খবর নিতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনুকে গণপিটুনিতে হত্যার ঘটনায় করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল হয়নি আজকের নির্ধারিত দিনে। এজন্য নতুন করে ২০ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আজ বুধবার মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্ধারিত দিন ছিল। তবে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তা দাখিল করেননি। এরপর ঢাকা মহানগর হাকিম জিয়াউর রহমান প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন করে ২০ ফেব্রুয়ারি দিনটি ধার্য করেন।

গত বছর ২০ জুলাই সকালে উত্তর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে ওই নারীকে পিটিয়ে আহত করে বিক্ষুব্ধ জনতা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে নিহতের মরদেহ সনাক্ত করেন তার ভাগনে ও বোন রেহানা। রেনুর ১১ বছরের এক ছেলে ও চার বছর বয়সী মেয়ে রয়েছে। আড়াই বছর আগে স্বামী তসলিম উদ্দিনের সঙ্গে তার বিবাহবিচ্ছেদ হয়। এরপর থেকে ছেলেমেয়েকে নিয়ে মহাখালী ওয়ারলেস গেইট এলাকায় থাকতেন তিনি। ঘটনার দিন তিনি ছেলেকে স্কুলে ভর্তি করার জন্য বাড্ডায় যান।

এ ঘটনায় ইব্রাহিম হোসেন হ্নদয়, বাচ্চু, শাহীন , বাপ্পী, কামাল হোসেন, আবুল কালাম আজাদ, জাফরসহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা কারাগারে আছেন। কয়েকজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন।

Leave a Reply