সোলাইমানির বিরুদ্ধে ফের কাল্পনিক অভিযোগ ট্রাম্পের

সোলাইমানির বিরুদ্ধে ফের কাল্পনিক অভিযোগ ট্রাম্পের

গত ৩ জানুয়ারি ভোররাতে ইরাকের রাজধানী বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন হামলা চালিয়ে কাসেম সোলাইমানিসহ ইরান ও ইরাকের ১০ জন সেনা কমান্ডারকে হত্যা করে মার্কিন বাহিনী। এদিকে, ইরানের কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে হত্যা করার পক্ষে সাফাই গাইলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সোলাইমানির বিরুদ্ধে কাল্পনিক অভিযোগগুলোর পুনরাবৃত্তি করেছেন তিনি।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গতকাল শনিবার এক টুইট বার্তায় বিশ্ব জনমতকে ধোকা দেয়ার উদ্দেশে জেনারেল সোলাইমানির বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ উত্থাপন করেন। তিনি দাবি করেন, সোলাইমানি বিশ্বশান্তির জন্য একজন ভয়ঙ্কর ব্যক্তি হয়ে উঠছিলেন বলে তাকে দুনিয়া থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

ডেমোক্র্যাটরা ইরানি জেনারেলকে হত্যার ঘটনায় হোয়াইট হাউসের অবস্থানকে সমর্থন করা সত্ত্বেও ট্রাম্প তার টুইটার বার্তায় দাবি করেন, ডেমোক্র্যাটরা ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডারের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার এই টুইটার বার্তায় ডেমোক্র্যাটকদেরকে ‘উন্মাদ’ বলে অভিহিত করেন।

ট্রাম্প এর আগে শুক্রবার মার্কিন নিউজ চ্যানেল ফক্স নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে দাবি করেন, জেনারেল সোলাইমানি চারটি দূতাবাসে হামলা চালাতে চেয়েছিলেন।

তিনি এমন সময় এ দাবি করেন যখন খোদ মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর প্রতিবেদনেই ভিন্ন তথ্য পরিবেশন করা হয়েছে।

মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট এ সম্পর্কে লিখেছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইরানি জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যা করাকে বৈধ হিসেবে তুলে ধরার জন্য এ ধরনের কাল্পনিক অভিযোগ উত্থাপন করছেন।

Leave a Reply