যুক্তরাষ্ট্রকে বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স দেবে না ইরান

যুক্তরাষ্ট্রকে বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স দেবে না ইরান

ইরানের রাজধানী তেহরানে ১৭৬ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত ইউক্রেনের ওই বিমানটির ব্ল্যাক বক্স নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং কিংবা যুক্তরাষ্ট্রকে দেবে না ইরান। বৈশ্বিক বিমান বিধিমালার অনুযায়ী এই ঘটনার তদন্তে নেতৃত্ব দেয়ার অধিকার ইরানের রয়েছে।

সাধারণত এসব তদন্তে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান যুক্ত থাকে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, খুব অল্প দেশই ব্ল্যাক বক্সগুলো বিশ্লেষণ করতে সক্ষম। ইরানের বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার প্রধান প্রধান আলী আবেদজাদেহ বলেন, আমরা ব্ল্যাক বক্সটি বিমানটির প্রস্ততকারক সংস্থা বোয়িং অথবা যুক্তরাষ্ট্রকে দেব না।

তিনি বলেন, এই দুর্ঘটনাটি ইরানের বিমান সংস্থা তদন্ত করবে তবে ইউক্রেন চাইলে উপস্থিত থাকতে পারে। আবেদজাদেহ বলেন, এটি এখনও পরিষ্কার নয় যে কোন দেশ এই ব্ল্যাক বক্সগুলো বিশ্লেষণ করবে।

এদিকে ক্যানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন যে, তার দেশ তদন্তে ভূমিকা রাখতে চায় এবং এজন্য তিনি প্রযুক্তিগত সহায়তারও প্রস্তাব দিয়েছেন। বুধবার সকালে তেহরানের ইমাম খোমেনি বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের পরই ইউক্রেন এয়ারলাইন্সের ওই বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণেই ইউক্রেন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের বোয়িং-৭৩৭ মডেলের বিমানটি বিধ্বস্ত হয় বলে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। প্রথমে এতে মোট ১৮০ আরোহী ছিলেন বলে বিমান সংস্থাটি দাবি করলেও পরে এর আরোহী সংখ্যা ১৭৬ বলে নিশ্চিত করে।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের উদ্দেশে ইরানের বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়ন করেছিল বিমানটি। উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরেই এটি বিধ্বস্ত হয়ে এর সব আরোহী নিহত হন। ইরান-মার্কিন উত্তেজনার মধ্যে এ বিমান দুর্ঘটনা নতুন মাত্রা যোগ করেছে।

Leave a Reply