পশ্চিমবঙ্গে দাঙ্গা সৃষ্টির চক্রান্ত চলছে, শান্তি রক্ষার আবেদন মমতার

পশ্চিমবঙ্গে দাঙ্গা সৃষ্টির চক্রান্ত চলছে, শান্তি রক্ষার আবেদন মমতার

ভারতের নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভকারীদের আইন হাতে তুলে নিতে আগেই নিষেধ করেছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। অশান্তি সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারিও দিয়েছিলেন তিনি। এবার পুরো ঘটনার পেছনে চক্রান্তের অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এই ইস্যুকে সামনে রেখে কিছু ধর্মীয় কট্টরপন্থী রাজনৈতিক দল পশ্চিমবঙ্গে দাঙ্গা তৈরি সৃষ্টির চেষ্টা করছে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, রাজ্যের মানুষকে হিংসাত্মক কাজকর্ম থেকেও বিরত থাকার পাশাপাশি সম্প্রীতি ও শান্তি বজায় রাখার আবেদন করেছেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গে চলতি অসন্তোষ নিয়ে এরই মধ্যে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ শুরু করেছে বিজেপি। অশান্তির ঘটনার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও তৃণমূল নেতাদের দায়ী করেছে তারা। এমন পরিস্থিতি চলতে থাকলে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন ছাড়া অন্য পথ খোলা থাকবে না বলে মন্তব্য করলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা।

এমন এক চাপানউতরের মধ্যে রাজ্যজুড়ে সম্প্রীতি ও শান্তি বজায় রাখার জন্য আবারো আবেদন জানিয়েছেন মমতা। এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, কোনো হিংসাত্মক কাজকর্মে লিপ্ত হবেন না এবং রাজ্যজুড়ে সম্প্রীতি ও শান্তি বজায় রাখুন।

তিনি আরো বলেন, রাজ্য সরকার নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল এবং এনআরসি-র বিরুদ্ধে। রাজ্য সরকার শান্তি নষ্ট করার যাবতীয় প্রচেষ্টারও ঘোর বিরোধী। যে কোনো ধরনের সম্পত্তির কোনো রকম ক্ষতি হলে তা রাজ্য সরকার কোনো মতেই মেনে নেওয়া হবে না। আইনানুগ কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। গণতান্ত্রিক এবং শান্তিপূর্ণ উপায়ে আমরা নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল এবং এনআরসির বিরুদ্ধে যাবতীয় বিরোধিতা করতে চাই।

এর রেশ ধরে চক্রান্তের অভিযোগ তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, কিছু রাজনৈতিক দল সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার উদ্দেশ্যে রাজ্যজুড়ে অশান্তির আবহ ও দাঙ্গা তৈরি করার চেষ্টা করছে। এই অসাধু উদ্দেশ্যে কর্ণপাত না করার জন্য আমি সকলকে অনুরোধ করছি।

Leave a Reply