অজয় রায়ের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে

অজয় রায়ের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে

সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কৃতী পদার্থবিদ অধ্যাপক ড. অজয় রায়ের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে নেওয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় শহীদ মিনারে আনা হয় তাঁর মরদেহ। সেখানে সর্বস্তরের মানুষ তাঁকে শ্রদ্ধা জানান।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে অজয় রায়ের মরদেহ বারডেম হাসপাতালের হিমঘর থেকে তার বেইলি রোডের বাসভবনে নেওয়া হয়। মরদেহ বাসায় নেওয়ার পর অশ্রুসজল হয়ে পড়েন অজয় রায়ের স্বজনেরা৷ ছোট ছেলে অনুজিৎ রায়, পুত্রবধূ কেয়া বর্মণকে সান্ত্বনা দেন উপস্থিত অন্যান্য স্বজন, প্রতিবেশী ও গুণগ্রাহীরা৷

বাসা থেকে অজয় রায়ের মরদেহ নেওয়া হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে৷ সেখানে মরদেহটি সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রাখা হবে। এরপর মরদেহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে নেওয়া হবে। সেখান থেকে জগন্নাথ হলে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য নেওয়া হবে। এরপর অজয় রায়ের শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী চিকিৎসাবিজ্ঞানে গবেষণার জন্য তার মরদেহ বারডেম হাসপাতালে দেওয়া হবে।

অজয় রায়ের ছোট ছেলে অনুজিৎ রায় বারডেম হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, বাবার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী তাঁর মরদেহ বারডেম হাসপাতালে দান করা হবে।

গতকাল সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর বারডেম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ২৫ নভেম্বর থেকে বারডেম হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। ধীরে ধীরে শ্বাসকষ্ট বাড়লে ভর্তির দুই দিন পর থেকে তাঁকে কৃত্রিম শ্বাস দেওয়া হচ্ছিল।

Leave a Reply