রাজধানীতে ছাদ থেকে পড়ে নারীর মৃত্যু

রাজধানীতে ছাদ থেকে পড়ে নারীর মৃত্যু

পুরান ঢাকার সূত্রাপুর এলাকায় একটি বহুতল ভবনের ছাদ ঝাড়ু দেওয়ার সময় নিচে পড়ে গিয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তার নাম, বুলবুলি বেগম (৪৮)। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে সিরিষ দাস লেনের আক্তার আলীর ২৬ নম্বর বাড়ির ছাদে ঝাড়ু ৱদেওয়ার সময় এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।

প্রাথমিক তদন্ত শেষে সূত্রাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) স্নেহাশীষ রায় বলেন, পেশায় কাজের ছুটা বুয়া ছিলেন নিহত বুলবুলি। ছাদ ঝাড়ু দিতে গিয়ে নিচে পড়ে গিয়ে তার মৃত্যু হয় বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে। তবে এর বাইরে অন্য কোনো কারণে তার মৃত্যু হয়েছে কিনা তার তদন্ত চলছে।

ওই ভবনের বাসিন্দাদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, ধারণা করা হচ্ছে ছাদে ঝাড়ু দেওয়ার সময় বুলবুলি মাথা ঘুরে নিচে পড়ে যান। শব্দ পেয়ে আশপাশের লোকজন দৌড়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় ন্যাশনাল মেডিক্যালে নিয়ে যান। এরপর সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ভবনের প্রথম তলার ছাদের অর্ধেক জায়গা খালি আর বাকী জায়গায় ঘর তোলা আছে। ওই খালি অংশেই ঝাঁড়ু দিতে গিয়ে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে। তারপরও মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে লাশের ময়না তদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, পুরান ঢাকার মুরগী টোলায় বসবাসকারী স্বামী পরিত্যক্তা বুলবুলির গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীর বাউফলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই সূত্রাপুরের বিভিন্ন বাসায় ছুটা কাজ করছিলেন।

সূত্রাপুর থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে প্রথম তলার ছাদ থেকে নিচে পড়ে মাথায় প্রচণ্ড আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে ঘটনাস্থলেই বুলবুলি মারা যান। তার মৃত্যৃর অন্য কোনো কারণ আছে কিনা তার তদন্ত চলছে।

Leave a Reply