জেনেভায় জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক মেলায় বাংলাদেশের স্টল প্রশংসিত

জেনেভায় জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক মেলায় বাংলাদেশের স্টল প্রশংসিত

আজ জাতিসংঘের জেনেভার সদর দপ্তরে জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক বাজার (মেলা) অনুষ্ঠিত হয়। মানবতার কল্যাণে অর্থ সংগ্রহের লক্ষ্যে প্রতিবছরই ‘ইউএন উইমেন গিল্ড’ এ মেলার আয়োজন করে থাকে। প্রতি বছরের ন্যায় এ মেলায় অংশ নিয়েছে জেনভায় বাংলাদেশ দূতাবাস ও স্থায়ী মিশন। অসংখ্য লোকজ ও সাংস্কৃতিক উপাদানযুক্ত পণ্য সামগ্রীর বিভিন্ন পণ্য বাজারে সজ্জিত বাংলাদেশ স্টল ছিল বিদেশী ক্রেতাদের অন্যতম আকর্ষণ।

এ মেলায় জাতিসংঘের প্রায় সকল সদস্য রাষ্ট্র তাঁদের ঐতিহ্যবাহী পণ্য বা খাবারের স্টল নিয়ে বসে। সুজারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ও জেনেভার বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের প্রতিনিধির সহধর্মিনী মমতাজ আহসান বাংলাদেশ মিশন ও জেনেভার বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থায় কর্মরত বাঙালি কর্মকর্তাদের স্ত্রীদের সাথে নিয়ে এ মেলায় বাংলাদেশ স্টল পরিচালনা করেন।

বাংলাদেশের শাড়ি, নকশীকাঁথা, অলংকারাদি এবং হরেক রকমের পাটজাত পণ্য কেনার লক্ষ্যে বাংলাদেশ স্টলে বিদেশীদের ভীড় ছিল চোখে পড়ার মতো। জেনেভাস্থ জাতিসংঘ কার্যালয়ের মহাপরিচালক মান্যবর মিজ তাতিয়ানা ভালোভায়া বাংলাদেশের স্টল পরিদর্শন করে প্রদর্শিত পণ্য সম্পর্কে বিস্তারিত খোঁজ নেন এবং স্টলের বৈচিত্র্যময় পসরার প্রশংসা করেন।

জেনেভায় বসবাসরত জাতিসংঘ সদস্য রাষ্ট্রসমূহের কূটনীতিদের স্ত্রীগণ, কুটনীতিবর্গ ও তাঁদের পরিবারের সদস্যসহ জাতিসংঘের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণের বিপুল উপস্থিতিতে সকাল ১০টা হতে শুরু হয়ে বেলা ৪ টা পর্যন্ত এই মেলা চলে।

সুইজারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ও জেনেভার বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের প্রতিনিধি শামীম আহসান ‘বাংলাদেশ স্টল’ সহ এ মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন।

তিনি বলেন, মানবতার কল্যাণে অর্থ সংগ্রহের লক্ষ্যে প্রতিবছরই ‘ইউএন উইমেন গিল্ড’ এ মেলার আয়োজন করে থাকে যা সত্যিই প্রশংসনীয় এবং এ রকম অনন্য উদ্যেগে বাংলাদেশ স্টলের সক্রিয় অংশগ্রহন ও ভূমিকা মানবিক কূটনীতিতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের অবস্থানকে সুদৃঢ় করছে।

বাংলাদেশের কৃষ্টি, সংস্কৃতি, আতিথেয়তা, সম্প্রীতি ও ঐতিহ্য আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুলে ধরার ক্ষেত্রে এ বাজার তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রেখে আসছে মর্মে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।

Leave a Reply