‘শুধু টিউলিপ নামের কারণে তারা গচ্চা দেয় ৩২ কোটি টাকা’

‘শুধু টিউলিপ নামের কারণে তারা গচ্চা দেয় ৩২ কোটি টাকা’

‘আমার ছোট বোন রেহানার মেয়ের নাম টিউলিপ। নেদারল্যান্ডসের একটি কম্পানির নামও টিউলিপ। শুধু নামের কারণে ঈর্ষান্বিত হয়ে ১০ হাজার কম্পিউটার এবং ৩২ কোটি টাকা গচ্চা দেয় তারা।’

২০০১ সালে বিএনপি আমলের একটি ঘটনার কথা উল্লেখ করে চারটি প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে প্রকল্পগুলো উদ্বোধন করা হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় থাকতে নেদারল্যান্ডসের একটি কম্পিউটার কম্পানির সঙ্গে কথা হয়, তারা কম দামে আমাদের ১০ হাজার কম্পিউটার দেবে। এর মধ্যে তারা বললো ৫ হাজার কম্পিউটার আপনারা কিনবেন, বাকি ৫ হাজার আমরা অনুদান দেব। সে হিসাবে চুক্তি হলো। কিন্তু এরই মধ্যে ক্ষমতার পালাবদল হলো। ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এলো।’

‘নেদারল্যান্ডসের সঙ্গে কম্পিউটার নেয়ার চুক্তির বিষয়টি সম্পর্কে বেগম খালেদা জিয়াকে বলা হলো, শেখ রেহানার মেয়ের নাম টিউলিপ। আবার নেদারল্যান্ডসের যে কেম্পানি থেকে কম্পিউটার নেয়া হবে, এর নামও টিউলিপ। শুধু নামের কারণে এই কম্পানি থেকে কম্পিউটার নেয়া বন্ধ করে দেয় তখন। নেদারল্যান্ডস কম্পানি এ বিষয়ে মামলা করে। মামলার কারণে আমাদের ৩২ কোটি টাকা ব্যয় হয়। শুধু একটি নামের কারণে ৩২ কোটি টাকা গেল এবং ১০ হাজার কম্পিউটারও গেলে। এই হলো বিএনপির মনোভাব।’

তিনি আরও বলেন, এর আগে বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে মোবাইল ফোন এবং কম্পিউটারের দাম এমনভাবে ধরা হলো যে অনেক ধনী লোকেরও মোবাইল এবং কম্পিউটার ক্রয় সাধ্যের বাইরে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা আবারও ক্ষমতায় আসার পর মোবাইল ফোন এখন মানুষের হাতে হাতে। এ ছাড়া জয়ের পরামর্শ অনুযায়ী কম্পিউটারের ওপর ট্যাক্স কমিয়ে দেয়া হয়। এখন গ্রামগঞ্জ-হাট-বাজার ও ঘরে ঘরে কম্পিউটার। অনেকে কিম্পিউটারের মাধ্যমে ব্যবসা করছে। ছাত্র-ছাত্রীদের ট্রেনিং দিচ্ছে। এতে অনেকের কর্মসংস্থান হয়েছে। অনেকে আউট সোর্সিং করে পয়সা ইনকাম করছে।

Leave a Reply