ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বহিরাগত একজন শিক্ষার্থীকে হলে রাখা নিয়ে দুই পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে এ মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে ৪-৫ জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

আজ শনিবার সকালে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জন্য ছাত্রলীগ নেত্রীরা একে-অপরকে দোষারোপ করছেন।

জানা গেছে, বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা হলের ২১৯ নম্বর রুমে ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রুপা একজন বহিরাগতকে রাখতেন। তাকে কেন্দ্র করেই হলের ছাত্রলীগের অন্য গ্রুপের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়। রুপার দাবি, নাবিলা ইডেনের ডিগ্রির শিক্ষার্থী। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রুপার বিরুদ্ধে কয়েকজনকে মারধর ও সাবিকুন্নাহার তামান্না নামে একজনের হাতে বটি দিয়ে কোপ দেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে। পরে অন্যপক্ষ রুপার গ্রুপের কর্মীদের ওপর পাল্টা হামলা করে। তামান্নাকে ঢাকা মেডিক্যালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহনাজ বলেন, মারামারি হয়েছে শুনেছি। ঘটনার বিস্তারিত জানি না।

জানতে চাইলে ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রুপা বলেন, আমি কোনো সমর্থক তৈরি করিনি যারা কাউকে হামলা করবে বা মারধর করবে। ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আনজুমানারা অনুর সমর্থকরা বঙ্গমাতা হলে গিয়ে আমার চার-পাঁচ জন কর্মীর ওপর হামলা করেছে। পরে রাজিয়া হলের ২০৮ নম্বর কক্ষ থেকে আমার আইফোন ও ১৭ হাজার টাকা ছিনতাই করেছে।

লালবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম আশরাফ উদ্দিন বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় একজন আহত হয়েছে শুনেছি। ইতিমধ্যে সে চিকিৎসা নিয়ে ফিরেছে যতটুকু জানি। ইডেন কলেজ প্রিন্সিপালের সঙ্গে আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা কথা বলছেন।

Leave a Reply