যৌন হয়রানির পর প্রেম নিবেদন, পাকিস্তানি যুবককে ফেরত পাঠাচ্ছে দুবাই

যৌন হয়রানির পর প্রেম নিবেদন, পাকিস্তানি যুবককে ফেরত পাঠাচ্ছে দুবাই

একজন রোগিকে যৌন হয়রানির দায়ে দুবাইয়ে এক ফিজিওথেরাপিস্টকে কারাগারে পাঠানো হয়। শিগগিরই তাকে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে বের করে দেওয়া হবে। জানা গেছে, ওই ব্যক্তি তার রোগিকে পেছন থেকে চুম্বন করেছেন এবং কোমরে স্পর্শ করেছেন।

চলতি বছরের মে মাসে ওই রোগিকে থেরাপি দেওয়ার সময়ই ঘটনাটি ঘটিয়েছেন পাকিস্তানি ফিজিওথেরাপিস্ট। ৩৮ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে শিগগিরই দুবাই থেকে ফেরত পাঠানো হবে।

জানা গেছে, দোষী সাব্যস্ত হয়ে প্রথমে তিনি দণ্ডিত হন। তবে আপিল করলে তাকে দেশে ফেরত পাঠানোর রায় হয়। ৪৫ বছর বয়সী ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগ, দুবাইয়ে ওই ব্যক্তির কাছ থেকে এক সপ্তাহ ধরে থেরাপি দিয়ে নিচ্ছিলেন তিনি। এর মধ্যেই আপত্তিকর ঘটনাটি ঘটে।

তিনি বলেন, আমি হঠাৎ করে দেখি তিনি আমার মুখের কাছে মুখ নিয়ে চলে আসেন। ওই সময় তিনি আমার কোমরে হাত রাখেন এবং আলতো করে সেখানে হাত বোলান। ওই সময় তিনি আবেগের সঙ্গে আমাকে চুম্বন করেন। তৎক্ষণাৎ তিনি আমার কোমরে জোরে চাপ দেন।

এ ঘটনার পর ক্লিনিক থেকে বেরিয়ে যান ওই নারী। পরদিন সেখানে গেলে অভিযুক্ত তাকে বলেন, তিনি ওই নারীকে পছন্দ করেন।

এরপর তিনি পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন। সেই সঙ্গে অভিযুক্তের একটি বার্তাও পুলিশকে দেখান। তাতে লেখা আছে, তুমি সেখানে আসার পর হঠাৎ করেই ওই ঘটনা ঘটে গেছে। তুমি খুব সুন্দর এবং আমি তোমাকে খুব পছন্দ করি, আমি জানি না যে, ওই সময় আমার কী হয়ে গিয়েছিল।

Leave a Reply