প্রেমের প্রস্তাব দেওয়ায় নালিশ, ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

প্রেমের প্রস্তাব দেওয়ায় নালিশ, ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

ছোট ভাই হোসেন বক্স (২৪) পছন্দ করতেন একটি মেয়েকে। তাকে প্রেমের প্রস্তাবও পাঠান। কিন্তু বিধি বাম। পরিবারের লোকজন তার বিয়ে ঠিক করেছেন অন্যত্র। তাই ফিরিয়ে দেয় সে প্রস্তাব। কিন্তু হোসেন নাছোড়বান্ধা।

একপর্যায়ে মেয়েটির পরিবারের লোকজন নালিশ করেন হোসেনের বড় ভাই হাসানকে (২৮)। হাসান বকাবকি করেন ছোট ভাইকে। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা। একপর্যায়ে ধারালো ছুরি বুকে বসিয়ে দিয়ে হত্যা করলেন ছোট ভাইকে।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল রবিবার (৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ঢাকার ডেমরার পূর্ব বক্সনগর অন্ধপট্টি এলাকায়।

নিহত হোসেন বক্স একই এলাকার আলী বক্সের ছেলে। এ ঘটনায় মৃতের বাবাসহ দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেমরা থানায় নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে পালিয়ে গেছেন ঘাতক বড় ভাই মো. হাসান বক্স (২৮)।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নিহত হোসেন বক্স বাড়ির পাশের একটি মাছের খামারে কাজ করতেন। কয়েক দিন ধরে ওই এলাকার কারখানায় কর্মরত একটি মেয়েকে পছন্দ করতেন তিনি। একপর্যায়ে মেয়েটিকে প্রেমের প্রস্তাব দেন তিনি। তবে পারিবারিকভাবে অন্যত্র বিয়ের সিদ্ধান্ত হওয়ায় হোসেনের প্রেমের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন তিনি।

এ নিয়ে হোসেন মেয়েটির কাছে তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলার দাবি জানান। বিষয়টি নিয়ে হোসেনের বড় ভাই হাসান বক্সের কাছে নালিশ করেন মেয়েটির স্বজনরা। গত দু-তিন দিন ধরেই এ নিয়ে হাসান বক্স ও তার ছোট ভাইয়ের বাকবিতণ্ডা চলছিল।

নিহতের বড় বোন মঞ্জু বলেন, রবিবার সন্ধায় হঠাৎ বাড়িসংলগ্ন দোকানের সামনে জনসমক্ষে হাসান বক্স ও হোসেন বক্সের মধ্যে মেয়েটির বিষয়ে তুমুল ঝগড়া বাঁধে। একপর্যায়ে বড় ভাই মাদকাসক্ত হাসান একটি ছুরি এনে ছোট ভাই হোসেনের বুকের বাম দিকে আঘাত করেন। মুহূর্তেই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন হোসেন। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন।

ডেমরা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মো. রাকিবুল হাসান বলেন, মর্মান্তিক এ ঘটনার পরই খুনি দ্রুত পালিয়ে যান। তবে তাকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply