ন্যান্সিকে ‘তৃতীয় শ্রেণির’ রাজনীতিবিদ বললেন ট্রাম্প

ন্যান্সিকে ‘তৃতীয় শ্রেণির’ রাজনীতিবিদ বললেন ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে আয়োজিত এক বৈঠকে মার্কিন কংগ্রেসের ডেমোক্রেটিক স্পিকার ন্যান্সি পেলোসিকে ‘তৃতীয় শ্রেণির’ রাজনীতিবিদ বলে অভিহিত করেছেন। গতকাল বুধবারের এই বৈঠকে ন্যান্সি সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের কঠোর সমালোচনা করেন। ট্রাম্প অবশ্য এই সমালোচনা প্রত্যাখ্যান করেছেন। খবর রয়টার্সের।

ট্রাম্প বলেছেন, তুরস্কের সঙ্গে বিরোধ নিরসনে রাশিয়া সিরিয়াকে সহায়তা করলে তিনি কিছু মনে করবেন না। ন্যান্সির সমালোচনা উড়িয়ে দিয়ে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে কুর্দিদের পক্ষে মোতায়েন করা সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে তিনি ‘কৌশলগতভাবে চমৎকার’ বলে অভিহিত করেছেন। আর ন্যান্সি বলেছেন, ট্রাম্প ভুল পথে পা বাড়াচ্ছেন।

গত সপ্তাহে ন্যাটো মিত্র তুরস্ক সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে কুর্দিনিয়ন্ত্রিত এলাকায় হামলা চালায়। কুর্দি যোদ্ধা সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সের (এসডিএফ) সঙ্গে সমঝোতার পর সিরিয়ার মানবিজ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের পর ওই এলাকায় অবস্থান নিয়েছে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের বাহিনী। সূত্র বলেছে, ওই এলাকার প্রায় ১ হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে বাশার বাহিনী। এ প্রসঙ্গে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান বলেন, সিরিয়ার সেনা দেশটির মানবিজে প্রবেশে করেছে। এটা তুরস্কের জন্য ‘খুব বেশি নেতিবাচক’ নয়। দিন শেষে কুর্দি যোদ্ধারা সেখান থেকে সরে যাবে।

২০১১ সালে শুরু হওয়া গৃহযুদ্ধের ফলে এই অঞ্চলের বেশির ভাগ অংশ সিরিয়া সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে ছিল। ২০১৫ সাল থেকে এসডিএফ এ অঞ্চল নিয়ন্ত্রণ করছে। ২০১৪ সাল থেকে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে যুদ্ধে মার্কিন সেনাবাহিনীর মূল সহযোগী ছিল এসডিএফ।

তুর্কি বাহিনী কুর্দি মিলিশিয়াদের সাফ করে একটি ‘নিরাপদ অঞ্চল’ তৈরির পরিকল্পনা করছে। এখানে সিরিয়ার শরণার্থীদেরও জায়গা দেওয়া হবে। কুর্দি নেতৃত্বাধীন বাহিনী এ হামলা প্রতিহত করার অঙ্গীকার করেছে।

সিরিয়া যুদ্ধ পর্যবেক্ষণকারী যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস (এসওএইচআর) জানিয়েছে, রুশ সেনাবাহিনীর সহায়তায় সিরিয়ান সেনাবাহিনী কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ সীমান্তবর্তী শহর কোবানিতে প্রবেশ করেছে।

ইতালির প্রেসিডেন্ট সার্জিও মাত্তারেল্লার সঙ্গে দেখা করার পর এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, কুর্দিরা ‘ফেরেশতা’ নয়। তুরস্ক ও রাশিয়া–সমর্থিত সিরিয়া প্রয়োজনে ‘লড়াই’ করতে পারে।

Leave a Reply