নেত্রী বললে দ্বিতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব নেব

নেত্রী বললে দ্বিতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব নেব

আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে নিজে থেকে প্রার্থিতা ঘোষণা করবেন না বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, পারসোনালি আমি কোনো প্রকার প্রার্থিতা ঘোষণা করব না। নেত্রী যাকে ইচ্ছে দেবেন। আমাকে যদি তিনি থাকতে বলেন, সেটা তিনি বলতে পারেন। আবার বলতে পারেন, বিদায়! আরেকজন আসবেন, নতুন মুখ আসবে। ওয়েলকাম, কোনো অসুবিধা নেই।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, গুরুত্বপূর্ণ পদগুলো দলের প্রধানের মাইন্ড সেটের ওপরে সবাই ছেড়ে দেয়। তার নির্দেশনায় দল চলবে। প্রার্থী হওয়ার অধিকার সবার আছে, তবে নেত্রীর ইচ্ছার বাইরে কিছু হয় না। আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। সবারই এমন পদ কাঙ্ক্ষিত। তিনি আস্থা রেখে দলের সাধারণ সম্পাদকের যে দায়িত্ব দিয়েছেন, তা পেয়ে তিনি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। কারণ এ পদের ইচ্ছা সবার থাকে। এটা বিরাট সম্মানের বিষয়।

তিনি বলেন, নেত্রীর ইচ্ছের বাইরে আসলে কিছু হয় না। নেত্রী সাধারণ সম্পাদক হিসেবে যাকেই পছন্দ করেন, আওয়ামী লীগের কর্মী-কাউন্সিলররা তার প্রতি সবাই ঝুঁকে পড়েন। আমি ভাগ্যবান মানুষ, আমি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হয়েছি। অনেক কর্মী আজীবন ত্যাগ করেও এই পদটি পায়নি।

কাদের বলেন, আমি এটুকু বলতে পারি, আমার চেষ্টা ও আন্তরিকতায় কোনো ঘাটতি ছিল না। অসুস্থ ছিলাম কিছুদিন। অসুস্থতার পরও আমি দল ও সরকারে সমানভাবে সময় দিচ্ছি। যখন যেখানে প্রয়োজন, সেখানে আমি নিজেকে এনগেইজড করছি। এবার নেত্রী কাকে পরবর্তী সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পছন্দ করবেন, তিনি যাকে পছন্দ করবেন, তার প্রতি আমাদের সবারই পূর্ণ সমর্থন রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

Leave a Reply