নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২০ মামলার আসামি নিহত

নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২০ মামলার আসামি নিহত

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হৃদয় ওরফে গিট্টু হৃদয় (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।
আজ বুধবার ভোর ৪টার দিকে উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের মৃধাকান্দি গ্রামের পাশে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত হৃদয় উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের মৃত সবুজ মিয়ার ছেলে।
র‌্যাবের দাবি, নিহত হৃদয় পুলিশের তালিকাভুক্ত ‘মাদক ব্যবসায়ী’। তার বিরুদ্ধে ২০টির বেশি মামলা রয়েছে।
র‌্যাব-১১ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁ উপচেলার চেঙ্গারকান্দি এলাকা দিয়ে মাদকের একটি চালান যাচ্ছে- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভোর ৪টার দিকে র‌্যাব-১১ এর একটি দল সেখানে চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহনে তল্লাশি চালায়। একটি প্রাইভেটকারকে থামানোর সিগন্যাল দিলে সিগন্যাল অমান্য করে চালিয়ে যেতে চায় তারা। এ সময় র‌্যাব চ্যালেঞ্জ করলে প্রাইভেটকার থেকে নেমে একজন র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালালে দুপক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ হয়। পরে ঘটনাস্থলে একজনকে আহতাবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে র‌্যাব। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
নিহত হৃদয়ের হাত থেকে একটি বিদেশি পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলিসহ ম্যাগজিন উদ্ধার এবং প্রাইভেকটার থেকে তার সহযোগী জহিরুল, সেলিম ও গাড়ির চালক কামালকে আটক করা হয় বলেও জানান তিনি।
এ ছাড়া গাড়ি থেকে ‘৫০০টি ইয়াবা বড়ি, ৬টি দা, দুইটি চাপাতি’ উদ্ধার করা হয়।
পরে লাশটি মাদক বিক্রেতা হৃদয়ের বলে শনাক্ত করে এলাকাবাসী।
এ ঘটনায় ‘আহত র‌্যাবের সৈনিক সৌরভ রায় ও কনস্টেবল ওবায়দুলকে’ চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply